পাতা:কবিকঙ্কণ-চণ্ডী (প্রথম ভাগ) - চারুচন্দ্র বন্দ্যোপাধ্যায়.pdf/২৫৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শিবপূজা প্রচার S 8ሣ লিঙ্গার্চনাতন্ত্র ৩য় পটলে, লিঙ্গপুরাণে, স্কন্দপুরাণে, নারদ পঞ্চরাত্রের তৃতীয়া য়াত্ৰে প্ৰথমাধ্যায়ে, উৎপত্তি তন্ত্রের ৬৪% পটলে, শিবলিঙ্গার্চনের বিধি ও ফল বিস্তারিত আছে। শিব লিঙ্গরূপ প্ৰাপ্ত হন। ভূগু-মুনির শাপে । তৃগু শিবসাক্ষাৎকার করিতে আসিয়া নন্দীর কাছে শুনিলেন যে শিবপাৰ্ব্বতী একত্ৰ আছেন, এখন সাক্ষাৎ হইবে না।-- অসন্নিধ্যং প্রভোস তন্ত, দেব্য ক্রীড়তি শঙ্করাঃ । নিবৰ্ত্তম্ব নিবৰ্ত্তম্ব যদি জীবিতুমি ইচ্ছসি | এবং নিরাকৃতস্য তেন তন্ত্রাতিষ্ঠন মহাতপা: | বহুনি দিবসান্যস্মিন গৃহদ্বাবে মুনীশ্বব: | ততঃ ক্ৰোধসমাবিদ্ষ্টে ভুগু: প্ৰোবাচ শঙ্করম। বিনষ্টস তমসারূঢ়ো মাং ন জানাতি শঙ্কর; | নারী-সঙ্গম-মত্তো ঠ সোঁ যম্মান মাম অবমন্যতে । যোনি-লিঙ্গ-স্বরূপং বৈ রূপং তস্মাদ ভবিষ্যতি | --পদ্মপুবাণ, উত্তরখণ্ড, ২৫৫ অধ্যায়। ব্ৰহ্মা-পত্নী সাবিত্রী ও সপ্তর্ষিবা শাপে শিবেব লিঙ্গ খসিয়া যায়।-স্কন্দপুবাণ প্ৰভাসখণ্ড ১৬৫ ও ১৮৭। অধ্যায় , নাগ বখণ্ড ১ অধ্যায়। লিঙ্গপুবাণ । “সুপ্রাচীনকালে যখন দ্রাবিড়গণ শক্তি ও লিঙ্গ পূজা কবিত, তখন বঙ্গদেশে ইহাদের পূজা অনুষ্ঠিত হইত না। তান্ত্রিক ক্রিয়া ও তন্ত্রমত বৌদ্ধযুগের পূর্বকৰ্ত্তী *fast 5, a fices (Journal of the Royal Asiatic Society, 1904, p. 67) স্বীকার কবিতে হইবে যে, বৰ্ত্তমান প্ৰণালীর শাক্তধৰ্ম্ম৷ খৃষ্টীয় পঞ্চম শতকে পূৰ্ব্ববঙ্গে ও আসামে সর্বপ্রথম প্রচারিত হইয়া সেইখানকাব জনসাধারণের প্ৰবৃত্তি অনুসারে গ্রহণোপযোগী হয়। লোকে সেই শাক্তধৰ্ম্ম গ্ৰহণ করে। সূচনাতেই কামাখ্যায় শক্তিপূজা বেশ জাকিয়া বসে। এইস্থান হইতে শক্তিপূজা ক্ৰমশ: তিব্বত নেপাল ও গুজরাতে বিস্তৃত হইয়া পড়ে। পঞ্চম শতকের পূৰ্ব্বে শক্তিপূজা বঙ্গদেশে ছিল না। দ্রাবিড়-সম্পর্কেই বাঙ্গালায় এই উপাসনার বিস্তৃতি হইয়াছিল। দ্রাবিড় দেশে পৃথ্বীপূজা হইতেই শক্তিপূজার প্রথম উদ্ভব হয়। সেখানে গ্ৰামদেবতা পৃথুী, ভূ-দেবী বা ভূমিদেবীরূপে পূজিত হইতে হইতে ক্রমশঃ শক্তিরূপে পরিণত হইয়াছেন। বাদামী-গুহ্যমন্দিবের পৃথ্বীও এইরূপ তৃ-দেবী। পৃথিবীর বীজোৎপাদিকা শক্তি যাহাতে নষ্ট হইয়া না যায় তজ্জন্য দ্রাবিড়েয়া পৃথিবীর সন্তোষ বিধানের জন্য তাহাব উদ্দেশে পশু বলি দিত।