পাতা:কবিকঙ্কণ-চণ্ডী (প্রথম ভাগ) - চারুচন্দ্র বন্দ্যোপাধ্যায়.pdf/৬৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


68 কবিকঙ্কণ-চণ্ডী কবেন; সুরভীর বৎস দুগ্ধ পান করিয়া ফুৎকার দেওয়াতে তাব মুখোৎসৃষ্ট ফেন গিয়া শিবের গায়ে লাগে; শিব ক্রুদ্ধ হইয়া গাভীদেৱ দগ্ধ করিতে উদ্যত হন ; আশুতোষ শিব ব্ৰহ্মার বিনয়ে নিবৃত্ত হন। শিববোষেব একটু যে আঁচ গাভীর গায়ে লাগে তাতেই তাব শুভ্ৰ বৰ্ণ কীৰ্ব্ব বা হইয়া যায় এবং সেই অবধি গাভৗগণ নানা বর্ণের হয়। তখন ব্ৰহ্মা শিবকে তুষ্ট কবিবােব জন্য সুবভীব বৎস বৃষকে শিবেব বাহন কবিয়া দেন বৃষঞ্চৈনং ধ্বজার্থ মে দদৌ বাহনমেব চ। -- মহাভারত, অনুশাসনপৰ্ব্ব, ১৪১ অধ্যায় । এখন পৰ্য্যন্ত এ বৃষ সামান্য বৃষ মাত্র। তাব পাব পুৰাণে দেখি ধৰ্ম্ম বৃষরূপী, শিবেব বাহন । -- ধৰ্ম্মস ত্ব বৃষিকাপোণ জগদানন্দকারকঃ অষ্টমুর্ভেৰ অধিষ্ঠানম, অতঃ শান্তিং প্রযচ্ছ মে ধৰ্ম্মেীচয়ং বৃষাৰূপেণ নন্দী নাম গণাধিপা: -भ९छ१३१, ०१ अक्षारु । নন্দীব বৃষাৰূপ ধাবণ সম্বন্ধে বৃহদ্ধৰ্ম্মপুবাণে একটি উপাখ্যান আছে। দক্ষ শিববিবোধী ছিলেন ; কিন্তু তাব কন্যা দুৰ্গা শিবেব রূপ গুণে বা কথা শুনিয়া তাব অনুবাগিণী হন। শিব ইহা জানিতে পারিয়া বুদ্ধেব ছদ্মবেশে দুর্গাব আন্তঃপৰে অভিসাবে আসেন । নন্দী ছিলেন দক্ষালয়ের প্রহরী; তিনি মহাদেবকে চিনিতে পাবেন, এবং নিজে বুষ-রূপ ধাবণ করিয়া শিব-দুৰ্গাব পলায়নেব। বাহন হন । বৃহদ্ধৰ্ম্মপুবাণেই আবাব আব্ব একটি উপাখ্যান আছে-মহাদেব বুদ্ধবেশে দুর্গাব অন্তঃপুবে অভিসাবে আসিল দুৰ্গাব এ ক সখী নীলকুন্তলা ছদ্মবেশী শিবকে চিনিতে পারেন। তাব কথায় অপ্ৰত্যয় কবিয়া অপব সখী বন্ধুমুখী ব্যঙ্গ কবিয়া বলেন द्रृक्षसृ८क्र भशभूt | प्र नीलव्रुस्रुक्ष्यः । বুদ্ধত্বং যাহি, যেনায় বৃষ্যারূঢো। ব্ৰজেৎ পথি | ‘ওগো বৃষবুদ্ধি নীলকুন্তলা, তুমি বৃষ হও, বুড়োটা তাহা হইলে র্যাড়ে চড়িয়া পথে পথে বেড়াইতে পরিবে ।” এই কথার উত্তবে নীলকুন্তলা বলেন এবম অস্তু পরং ভাগ্যং শিব-বাহনতাম আগাম DD SLDED KDDS EBDDD BBDBuuKS ইতু্যক্ত । স যুদ্যো ভুতা, তাং সমারুকহে শিবঃ।-- KVrátoț91, gogge, 83 -> A