পাতা:কবিকঙ্কণ-চণ্ডী (প্রথম ভাগ) - চারুচন্দ্র বন্দ্যোপাধ্যায়.pdf/৭৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কবিকঙ্কণ-চণ্ডী بسر م\ একই দেবীকে একবার মাতা ও অন্যবার স্ত্রী কল্পনা হইতে দেবদেবীর যুগলমূৰ্ত্তির কল্পনা হয়। ঈজিপ্টে ইসিস ও অসিরিস, মেসোপটেমিয়ায় ইশতার ও তন্মুজ, সারিয়ায় তিয়াবৎ ও মেরোডাক, হিটাইটদের বৃষ ও সিংহী যুগলমূৰ্ত্তি। ভারতবর্ষে বহু জাতীয় স্বভাবের মিশ্রণের ফলে তিনটি প্রধান যুগলমূৰ্ত্তির সৃষ্টি হইয়াছিল। --রামসীতা, শিবদুর্গা, বাধাকৃষ্ণ । শুদ্ধ আৰ্য্য আদর্শের সৃষ্টি বামসীতা-পরম্পর অনুরক্ত, একনিষ্ঠ, নৈতিক ধৰ্ম্মপালনে দৃঢ়ব্ৰত। রাধাকৃষ্ণ আৰ্য্যপ্রভাবান্বিত দ্রাবিড় আদশ-কৃষ্ণ বহুভেংগী, গোপীগণ স্বামী সত্ত্বেও কৃষ্ণানুরাগিণী,-কিন্তু তারা ঐ এক কৃষ্ণেই আসক্ত, বহুতে নহে। শিবদুর্গা এই দুয়ের মাঝামাঝি-শিব একদিকে এক সময়ে মহাযোগী, তিনি মদনকে ভস্ম কবেন; অ্যাবাব অন্যদিকে অন্য সময়ে শবরপল্লীতে কোচপল্লীতে বা ঋষিপল্লীতে ঋষিপত্নীদের পর্য্যন্ত চিত্তবিক্ষেপ উৎপাদন করিয়া ফিবেন; কিন্তু দুৰ্গা সতী, পতিনিন্দ শুনিয়াই তিনি দেহত্যাগ করেন, পতিলাভেব জন্য দুষ্কর তপস্যায় প্ৰবৃত্ত হইয়া তিনি উমা ও অপর্ণা; কিন্তু তার স্বামীর সঙ্গে ব্যভিচার ভব্যতাব সীমা অতিক্ৰম করিয়া গিয়াছে ; এবং তার কন্যা লক্ষ্মী ও সরস্বতী একাধিক-দেবভোগ্য তি বটেই, মানুষেরও ভোগ্যা-লক্ষ্মী প্রথমে ইন্দ্রের, পাবে বিষ্ণুর, এবং এখন পৰ্য্যন্ত প্ৰত্যেক রাজা ও ভাগ্যবানেব ভোগ্য হইয়া আসিতেছেন ; কমলার সহিত ঋষি-সহবাসের কথা কাদম্বরীতে আছে ; সরস্বতী প্ৰথমে গ্ৰহ্মার, পাবে বিষ্ণুর, এবং এক সময়ে বাণভট্টেব পূৰ্ব্বপুরুষের অধীন হইয়াছিলেন। দুর্গাকে তন্ত্রে আবো হীন কবা হইয়াছে। দুর্গার এক নাম কন্যাকুমারী; সেই জন্য তান্ত্রিক সাধকে বা চক্রে দেবীপ্রতিনিধি কুমাৰী ভজনা দ্বারা পূজ্য ও পূজকের একাত্মতাব আনন্দ স্কুল ও কৃত্রিম উপায়ে আয়ত্ত করিবার চেষ্টা কবেন। বেদের রূপক শব্দের আশ্ৰয় লইয়া ও সাংখ্যদর্শনের পুরুষেবা পত্নীরূপিণী প্রকৃতি ও মায়াবাদের মিশ্রণে খৃষ্টাব্দের পূর্ব ও পর প্রথম শতকে শক্তিপূজা অস্কুবিত হইয়া উঠে বলিয়া অনুমান করা হয় । বৈদিকের বিপরীত তান্ত্রিক । বেদের নাম নিগম, তন্ত্রের নাম আগম । আগাম অর্থে যাহা আগত, অর্থাৎ যাহা বৈদিক প্রক্রিয়ায় ছিল না । সেই জন্যই তন্ত্র শিবমুখ হইতে আগত বলা হয়। বহুকাল হইতেই হিন্দুধৰ্ম্ম তান্ত্রিক; এই বঙ্গদেশে তার বিশেষ প্ৰতিষ্ঠা। এই শক্তিপূজার ক্রমবিকাশ বা পরিবর্তন কতবার কতরকমে হইয়াছে তার সোপানপরম্পরা বৈদিক যুগ হইতে অনুসরণ করিয়া দেখা যাক।-- বেদ-সংহিতা হইতে গহ্যসূত্ৰ প্ৰাচীন আৰ্য্যশাস্ত্রের মধ্যে দেবীর নাম থাকিলেও দেবীর প্ৰাধান্য প্রতিষ্ঠিত হয় নাই। রোদসী রুদ্রাণী ভবানী নাম আছে বটে, কিন্তু সেগুলি রুদ্র ও ভাব শব্দের স্ত্রীত্ববাচক শব্দ মাত্র, কোনো স্বতন্ত্র দেবী নহে। ঋগ্বেদের ১০ম মণ্ডলের