পাতা:কবিকঙ্কণ-চণ্ডী (প্রথম ভাগ) - চারুচন্দ্র বন্দ্যোপাধ্যায়.pdf/৮৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


(8 কবিকঙ্কণ {sछे-जब अकृभाcनय नमर्थन १शा• ७ ऊज़ হইতে এবং তাৎকালিক অপর जांहिङा হইতে পাওয়া যায়। শিবের উৎপত্তির পর তার বাসস্থান নির্দিষ্ট হইয়াছিল। কৈলাসে, ভারতের সেই দিকে যে দিক হইতে আসে। শক হন ও কিরাত ; তার পরে তিনি বিবাহ করিলেন হিমালয়ে, যে দিকে মোঙ্গল জাতির বাস ; এবং তার পরে দুর্গার লীলাক্ষেত্র হইল বিন্ধ্যপৰ্ব্বতে যে দিকে ভিল শবর পুলিন্দ জাতিদের প্রাধান্য। বহু পুরাণে দেখা যায় যে শিবপাৰ্ব্বতী কিরাত-বেশে কৈলাসে হিমালয়ে এবং ভিল্ল-বেশে বিন্ধ্যপৰ্ব্বতে ক্রীড়া করিয়া সেই সেই জাতিদেব তুষ্ট করিয়াছিলেন। ৫ম শতাব্দী পৰ্য্যন্ত কোনো সাহিত্যে বা শিলালিপিতে দুৰ্গা বা চণ্ডীর প্রাধান্য দেখা যায় না। এ পৰ্য্যন্ত সকল লেখকই চণ্ডীকে শবর কিরাতাদি অনাৰ্য্যের দেবতা সুতরাং হীন বলিয়া বৰ্ণনা করিয়াছেন। মালতীমাধব, বাসবদত্ত, কাদম্ববী, হর্ষচরিত, দশকুমাক চরিত, প্ৰভৃতিতে দেখিতে পাই যে চণ্ডী ও র্তাহার অনুষঙ্গী ভূতপ্রেত ও তন্ত্রমন্ত্র তখন অনাৰ্য্য বলিয়া ঘুণিত ছিল। ভবভূতির সমসাময়িক বাকপিতি তার বাচিত প্ৰাকৃত গউড়বাহা কাব্যে চণ্ডীকে শবরী বলিয়াছেন এবং তখন তার পূজা করিত শবরী ও কোলী স্ত্রীলোকেরা। বরাহ পুবাণে চণ্ডীর এক নাম কিরাতিনী। হেমচন্দ্ৰ অভিধানচিন্তামণি-পরিশিষ্টে চণ্ডীব এক নাম দিয়াছেন কিবাৰ্তী। শরৎকালের চণ্ডীপূজার উৎসবকে শাববোৎসব বলে ; কালিকা-পুবাণের ব্যবস্থা যে দেবীর বিসর্জনেব সময় শাবরোৎসব ‘ অবশ্য কৰ্ত্তব্য’। এই শাবরোৎসবে অশ্লীল নৃত্যগীত অনুষ্ঠেয় এবং এখনও বিসর্জনের সময় ঢুলিবা মাতৃবোধে পূজিতা দেবী সম্বন্ধে অকথ্য অশ্লীল নৃত্যগীত কবিতে করিতে প্ৰতিমা বিসৰ্জন দিতে যায় এবং ভদ্রলোকে বাও তাহ সহ করেন । মেরুতেন্ত্রে পঞ্চবিধ দেৰী-সাধনার মধ্যে অন্যতম শাবার সাধনা। বৃহৎকথায় ( ৭ম শতাব্দী) বিন্ধ্যবাসিনী-পূজার কথা আছে। দশমহাবিস্তার অনেক মূৰ্ত্তি পরে শাক্তসম্প্রদায়ে গৃহীত হয়। অনেক মূৰ্ত্তির বর্ণনা ও রূপ নিতান্ত অনাৰ্য্য। দেবী এক দিকে যেমন প্রথমে কুমারী ছিলেন, অপর দিকে ধূমাবতী আসিলেন বিধবা ! মালব দেশের অনাৰ্য্যদিগের মধ্যে বহু মাতৃকার পূজা প্রচলিত ছিল। এই সব মাতৃকা ক্ৰমে শিবদুর্গার সহচরী বা দুর্গারই রূপান্তর বলিয়া ভদ্রসমাজে চল হইয়া গিয়াছে। ভবিষোত্তরীয়ে আছে-“এবং নানা স্নেচ্ছগণৈঃ পূজ্যতে সৰ্ব্বদন্ত্যভিঃ।।” (শারদীয় দুৰ্গাপূজার ব্যবহায় তিথিতত্বে উদ্ভূত ) ৷ এখনো অনেক জেলায় গ্রামে রীতি আছে যে দুর্গার পূজা প্ৰথমে অম্পূখ অনাচরণীয় জাতির-বিশেষতঃ হাড়ির-বাড়ীতে না হইলে ব্ৰাহ্মণবাড়ীতে পূজা হইতে পারে মা। জয়দ্ৰথ যামল বলেন দেবী তৈলকার দ্বারা পুজায় বিশেষ গ্ৰীত হন (হরপ্রসাদ ) । দাক্ষিণাত্যের গ্ৰামদেবতাদের পুজার পুরোহিত ব্ৰাহ্মণ নয়, যত সব অম্পূখ্য অনাচরণীয় জাত।