পাতা:কবিতা - কেশবচন্দ্র কুণ্ডু.pdf/৬২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।
৫৪
কবিতা।


সমাধিতে শোভা সকল রেখে
যখন রে ধরা কাঁদিতে থাকে—
কিশোরীর প্রাণে  ধীরে ধীরে যথা
সরমে সোহাগ প্রকাশ পায়,
ঘুমের ঘোরেতে  পরাণে যেমন
সুখের স্বপন ছাইয়া যায়—

হাসির অভাবে  হাসিটি লয়ে,
ধীরে ধীরে কারে  কিছু না কয়ে,
জীবের জীবনে  মধুর ভাবে,
যা কিছু সুখের  ছাইয়া সবে,

স্বরগের সুখে  মরতে মাতি,
নানান কুহুক  কৌশল পাতি;
ভাবময় প্রাণে  ধরায় ছেয়ে
দিন কত শুধু  প্রকাশ পেয়ে,

দিবালোক যথা  কাল নিশাগমে
আপন মহিমা প্রচার তরে,
যেমন ধরায়  ত্যজিয়া রে যায়
হইয়া নূতন আসিতে ফিরে;—