পাতা:কমললতা - শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.pdf/৬৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

বলিয়াই সে কেমন একপ্রকার বিমনা হইয়া পড়িল। চক্ষ নিমীলিত, ৰাস-প্রবাসী খামিয়া আসিতেছে-সহসা সে যেন কোথায় কতদারেই না সরিয়া গেল । छझ आदेशा 4को नाफ्ला पिल्ला बलिलाभ,e कि ? DBBuHBBBuDD DBS BD DDB DBS Du DDYSDDDBYS তাহার এই হাসিটাও আজ যেন আমার কেমনধারা লাগিল । 川町f5甘 BDB DBDDBB DBDDDB BB DD uuDBYSDB BBuuB DB DDuuDuDD রাখা গেল না ; মারারিপর আখড়ার উদ্দেশ্যে যাত্রা করিতেই হইল। রাজলক্ষীর বাহন রতন, সে নহিলে কোথাও পা বাড়ানো চলে না, কিন্তু রান্নাঘরের দাসী লালাির মাও সঙ্গে চলিল। কতক জিনিসপত্র লইয়া রতন ভোরের গাড়ীতে রওনা হইয়া গিয়াছে, সেখানকার স্টেশনে নামিয়া সে খান-দাই ঘোড়ার গাড়ী ভাড়া করিয়া রাখিবে। আবার আমাদের সঙ্গেও মোটঘাট যাহা বাঁধা হইয়াছে, তাহাও কম নয়। প্রশ্ন করিলাম, সেখানে বসবাস করতে চললে নাকি ? রাজলক্ষী বলিল, দু-একদিন থাকবো না ? দেশের বনজঙ্গল, নদীনালা, মাঠঘাট তুমিই একলা দেখে আসবে, আর আমি কি সে-দেশের মেয়ে নাই ? আমার দেখতে लाक्ष शाक्ष भा ? তা যায় মানি, কিন্তু এত জিনিসপত্র, এত রকমের খাবার-দাবার আয়োজন-- রাজলক্ষী বলিল, ঠাকুরের স্থানে কি শব্ধ হাতে যেতে বলো ? আর তোমাকে তি বইতে হবে না, তোমার ভাবনা কিসের ? ভাবনা যে কত ছিল সে আর বলিব কাহাকে ? আর এই ভয়াটাই বেশি ছিল যে বৈষ্ণব-বৈরাগীর ছোঁয়া ঠাকুরের প্রসাদ সে সবচ্ছেন্দে মাথায় তলিবে কিন্তু মাখে তলিবে না। কি জানি, সেখানে গিয়া কোন একটা ছলে উপবাস শার করিবে, না রফিতে ৰাসিবে বলা কঠিন । কেবল একটা ভরসা ছিল মনটি রাজলক্ষীর সত্যকারী ভদ্ৰ মন । অকারণে গায়ে পড়িয়া কাহাকেও ব্যথা দিতে সে পারে না। যদিবা এসব কিছু করে, হাসিমাথে রহস্যে-কৌতুকে এমন করিয়াই করিবে ষে আমি ও রতন ছাড়া আর কেহ বাকিতেও পরিবে না । রাজলক্ষনীয় দৈহিক ব্যবস্থায় বাহুল্যভার কোনকালেই নাই, তাহাতে সংযম ও উপবাসে সেই দেহটিকে যেন লঘতার একটি দীপ্তি দান করিয়াছে। বিশেষ করিয়া তাহার। আজিকার সাজসজ্জাটি হুইয়াছে বিচিত্র। প্রত্যুষে স্নান করিয়া আসিয়াছে, গঙ্গার ঘাটে উড়ে-পান্ডার সময় রচিত। অলকা-তিলক তাহার ললাটে, পরনে তেমনি নানা ফুলে ফুল লতাপাতায় বিচিত্র খয়ের রঙের বন্দোবনী শাড়ি, গারে সেই কয়টি অলঙ্কার, to