পাতা:কমলাকান্ত - বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.djvu/১৭৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

{ কমলাকাস্তের দপ্তর به وی و কেকার অপরাদ্ধ আর ফুটিল না। দিবসে নিশীথ উপস্থিত হইল, পণ্যবীথিকার দীপমালা নিবিয়া গেল, পূজাগৃহে বাজাইবার সময়ে শঙ্খ বাজিল না ; পণ্ডিতে অশুদ্ধ মন্ত্র পড়িল ; সিংহাসন হইতে শালগ্রামশিলা গড়াইয়া পড়িল। যুবার সহসা বলক্ষয় হইল ; যুবতী সহসা বৈধব্য আশঙ্কা করিয়া কাদিল ; শিশু বিনারোগে মাতার ক্রোড়ে শুইয়া মরিল । গাঢ়তর, গাঢ়তর, ঢ়িতর অন্ধকারে দিক ব্যাপিল ; আকাশ, অট্টালিকা, রাজধানী, রাজবক্স দেবমন্দির, পণ্যবীথিকা, সেই অন্ধকারে ঢাকিল—কুঞ্জতীরভূমি, নদী নদীসৈকত, নদীতরঙ্গ সেই অন্ধকারে— অর্ণধার, অর্ণধার, অর্ণধার হইয়া লুকাইল । আমি চক্ষে সব দেখিতেছি—আকাশ মেঘে ঢাকিতেছে—ঐ সোপানাবলী অবতরণ করিয়া রাজলক্ষী জলে নামিতেছেন। অন্ধকারে নির্বাণোমুখ আলোকবিন্দুবৎ, জলে, ক্রমে ক্রমে সেই তেজোরাশি বিলীন হইতেছে। যদি গঙ্গার অতল-জলে না ভূবিলেন, তবে আমার সেই দেশলক্ষী কোথায় গেলেন ? ।