পাতা:কলিকাতা সেকালের ও একালের.djvu/১০৩৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


od 58 • কলিকাতা সেকালের ও একালের । অল্পাধিক অত্যাচার পরায়ণও হইয়া উঠিয়াছিলেন। যাহার। নবন্ধকের স্বারা উৎপীড়িত হইত, তাহারা মহারাজা নন্দকুমারের আশ্রয় গ্রহণ করিতে লাগিল । নন্দকুমার ইহাদিগকে সাধ্যমত সাহায্য করিতেন। ইহাও তাহার উপর নবকৃষ্ণের ক্রোধের আর এক কারণ । o S Rఅవి খুঁটাৰে কাটিয়ার সাহেব বঙ্গদেশের গভর্ণর হন । ই হার সময়েই “ছিয়াত্তরের মম্বস্তর” আরম্ভ হয় । নায়েব-দেওয়ান মহম্মদ রেজা খা, এই মশ্বস্তরের অমুচরের স্তায় ভীষণ অত্যাচার করিতে আরম্ভ করিলেন। র্তাহার সৰ্ব্বনাশকর অত্যাচারের তালিকায় বাঙ্গালার ইতিহাস কলঙ্কিত হইয়। রহিয়াছে। এই দুর্ভিক্ষের সময়ে, তিনি বাজারের সমস্ত চাউল স্বয়ং ক্রয় করিয়া লইয়া, অত্যধিক উচ্চমূল্যে বিক্রয় করিয়াছিলেন এবং সরকারী তহবিল হইতে বহু অর্থ জায়সাৎ করিয়াছিলেন । ইহার উপর রাজস্ব আদায়ের জন্য, পৈশাচিক অত্যাচারেরও বিরাম ছিল না। প্রজার কষ্টে অত্যন্ত কাতর হইয়া, মহারাজা নন্দকুমার স্বীয় ব্যয়ে বিলাতে একজন এজেন্ট পঠাইয়া, ডিরেক্টারগণকে এই অত্যাচার-সংবাদ অবগত করান। এই প্রতিনিধি প্রেরণের ফলে, বিলাতের কৰ্ত্তারা হেষ্টিংসকে নন্দকুমারের সাহায্যে, সৰ্ব্বাগ্রে মহম্মদ রেজা খণর বিচার করিতে আদেশ করিয়া পাঠাইলেন। হেষ্টিংস, মহম্মদ রেজা খ ও পাটনার শাসনকর্তা রাজ সিতাব রায়কে ধরিয়া আনাইলেন এবং বাধ্য হইয়া মহারাজা নন্দকুমারের উপরই এ বিষয়ের তদন্তের প্রধান ভার প্রদান করিলেন । এমন কি সাফল্যের পুরস্কারস্বরূপ, তিনি নন্দকুমারকে সমগ্র বঙ্গদেশের আমীন নিযুক্ত করিবার আশা পর্য্যস্ত দান করিয়াছিলেন । গভর্ণরের এই কথায় বিশ্বাস করিয়া, নন্দকুমার উভয়ের তহবিল-তছরুপাতের একটা তালিকা প্রস্তুত করিয়া প্রমাণ করেন যে, মহম্মদ রেজা খাঁ নবাব-সরকারের বহুবিধ মূল্যবান রত্নালঙ্কার, হস্তী, অশ্ব এবং ১১৭২ সাল হইতে ১১৭৮ সাল পর্য্যস্ত ছয় বৎসরে বাঙ্গালা ও ঢাকার রাজস্ব হইতে ২০ কোটী টাকা আত্মসাৎ করিয়াছিলেন। মন্বন্তরের সময় বাজারের সমস্ত চাউল একচেটিয়া করিয়া অত্যন্ত উচ্চদরে বিক্রয় করেন । এতদ্ভিন্ন কয়েকটী সরকারী-সম্পত্তির উপস্বত্ব নিজে ভোগদখল করিতেছিলেন। হুগলীর ফৌজদার রেয়াজউদ্দিন মহম্মদ খা, শ্ৰীহট্টের ফৌজদার মহম্মদ আলী খা, কোম্পানী বাহাদুরের নিকট প্রায় এক লক্ষ টাকার দায়ী ছিলেন। তাহাঙ্গের মৃত্যুর পর, তাহদের বিষয় সম্পত্তি কোম্পানীর হস্তে, না দিয়া, রেজা গী নিজে কোক করিয়া ভোগদখল করিতেছিলেন। পদচ্যুত হইয়াও নায়েব