পাতা:কলিকাতা সেকালের ও একালের.djvu/১৮৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


Y38 কলিকাতা সেকালের ও একালের এই দুইটা পর্কে, নকুলেশ্বরের স্থানে বিস্তর যাত্রীর সমাগম হয়। পূৰ্বে নকুলেশ্বরের চড়কপৰ্ব্ব, বড় সমারোহে সম্পাদিত হইত। কালীঘাটের উত্তর পূৰ্ব্ব সীমা, বর্তমান চড়কডাঙ্গায়—চড়ক-পৰ্ব্ব হইত এবং তদুপলক্ষে তথা প্রতিবৎসর ঐ সময়ে একটা মেলা হইত। নকুলেশ্বরের চড়ক-পৰ্ব্ব ঐ স্থানে সমাধা হইত বলিয়া, ঐ স্থান অদ্যাবধি "চড়কডাঙ্গ” বলিয়া অভি হিত হইয়া থাকে। নকুলেশ্বরের মঠমন্দির ব্যতীত, কালীঘাটের স্থানে স্থানে, অতি প্রাচীন অনেক শিব মন্দির দৃষ্ট হইয়া থাকে। এ মন্দিরগুলি সেবাইত হালদারগণ ও নানা-স্থানীয় ভিন্ন ভিন্ন লোক কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত হইয়াছে। এ সকল মনি মধ্যে, কালীর পুরীর মধ্যস্থ দুইটা শিব-মন্দির ও পুরীর সন্মুখীন গঙ্গার ঘাটের উপর হজুরিমল্প নিৰ্ম্মিত মন্দিরটা সৰ্ব্বাপেক্ষ প্রাচীন। ইতিপূৰ্ব্বে-কালিকাদেবীর কৃষ্ণপ্রস্তর নিৰ্ম্মিত মুখমণ্ডল প্রাপ্তির কথা উল্লিখিত হইয়াছে। প্রবাদমতে, ইহা মনুষ্যকৃত নহে–ব্রহ্মার স্থাপিত। এই মুখমণ্ডল, জনসমাজে প্রচারিত হইবার পূৰ্ব্বে-পবিত্র কালীকুণ্ডের পশ্চিম পারে, স্মরণাতীত কাল হইতে বিদ্যমান ছিল। কিন্তু বর্তমানে, ঐ মুখমণ্ডল বরাভয়-কর-সংযুক্ত ও অসি-শোভিত হইয়া, মন্দিরমধ্যে প্রতিমারূপে বিরাজ করিতেছে। মায়ের নেত্রদ্বয় স্বর্ণালঙ্ক ত—শিরোদেশে সোনার-মুকুট। মুকুটের উপর স্বর্ণময়—মতির-ঝালর দেওয়া ছত্র বিরাজিত। হস্তে তীক্ষুধার হিরন্ময় অসি-ও করে স্বর্ণময় নৃ-মুণ্ড । উক্ত মুখমণ্ডল প্রাপ্তির পর হইতে, এ সমস্ত অঙ্গ-সজ্জা কালে কালে সঞ্চিত হইয়া, কালীদেবীর বর্তমান মূৰ্ত্তিতে দাড়াইয়াছে। বহু ধৰ্ম্মপরায়ণ শাক্তের, একান্ত ভক্তির জন্য, বা কোন মানসিক বাসনা-সিদ্ধির ফলে, এ গুলি ভক্তি-উপহার রূপে প্রদত্ত হইয়াছে। এখন এ গুলির একটু পরিচয় দিব। মন্দিরের মধ্যস্থলে—উপযুপিরি প্রস্তর সাজাইয়া, তদুপরি ব্ৰহ্মার নিৰ্ম্মিত মুখমণ্ডল সংস্থাপিত করা হইয়াছে। লৌহময় হুকে—অসিমুণ্ডাদি ধূত, হস্ত চতু ষ্টয় সংযোজিত হইয়াছে। জনশ্রুতি এই—ঐ স্থূপীকৃত প্রস্তরগুলির মধ্যে,কালী দহে নিপতিত, বিষ্ণুর সুদর্শনছেদিত—প্রস্তরবৎ সতীঅঙ্গ, সযত্বে রক্ষিত আছে। স্নানযাত্রী—অম্বুবাচী—প্রভৃতি পুণ্যদিনে, মন্দিরের দ্বার বন্ধ করিয়া দিয়া, ঐ প্রস্তরময় পদাঙ্গুলীর স্বান ও পূজাৰ্দ্ধনাদি হয়। হালদার মহাশয় গণের মধ্যে, জ্যেষ্ঠের বংশোদ্ভূত যে কেহ থাকেন—তিনিই এই স্বনি কার্ষ্যে ব্ৰতী হন।