পাতা:কলিকাতা সেকালের ও একালের.djvu/২০২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


১৬৪ । কলিকাতা সেকালের ও একালের । জাহাজে, যে সমস্ত লৌহনিৰ্ম্মিত যন্ত্রাদি ও বিলাতী বাণিজ্য-দ্রব্যাদি ছিল, তাহার। তাহা কিনিয়া লইল । কাপ্তেন ল্যাঙ্কেষ্টারও মালয়-দ্বীপজাত নানাবিধ ফল, মরিচ, কপূর, মুসকর, গুলগুল, দারুচিনি, সোনামুখী প্রভৃতি দ্রব্য খরিদ করিয়া, জাভা-দ্বীপাভিমুখে যাত্রা করিলেন । এই যাত্রায় তাহারা ভারতের কোন বন্দরে প্রথম উপস্থিত হন—তাহার কোন বিবরণ পাওয়া যায় না। তবে মালয় ও জাভা-দ্বীপের সহিত বাণিজ্যে, এই নব প্রতিষ্ঠিত ইষ্ট ইণ্ডিয়া কোম্পানী যে যথেষ্ট লাভবান হইয়াছিলেন,তাহাৰু আর কোন সন্দেহই নাই । ప్రిa o ભૂઃ stw są cwɛrga zn ( John Maidanhall ) afir একজন ইংরাজ সওদাগর, আকবরের সভায় উপস্থিত ছিলেন । মেইডেনহল, কতদিন মোগল-দরবারে ছিলেন, তাছার বিস্তারিত বিবরণ কিছুই জানিতে পারা যায় না। তবে তিনি যে সম্রাট আকবরের অনুকম্পায় বাণিজ্য সম্বন্ধে একখানি অহুমতি পত্র ও ফরমান পাইয়াছিলেন, তাহার প্রমাণ পাওয়া যায়। মেইডেনহল ইংলণ্ডে ফিরিয়া গিয়া, পুনরায় ভারতবর্ষে আগমন করেন । কিন্তু এবার আর র্তাহাকে দেশে ফিরিতে হয় নাই। আগরায় তাহার মৃত্যু হয় । ধরিতে গেলে, জাহাঙ্গীর বাদসাহের আমলেই, ইংরাজের বাণিজ্য-লক্ষ্মী ও সৌভাগ্য প্রতিষ্ঠিত হয়। ইষ্ট-ইণ্ডিয়া কোম্পানীর বাণিজ্য-স্বত্ব লাভের জঙ্গ, কপ্তেন হকিন্স নামক একজন ইংরাজ ভারতে প্রেরিত হয়েন। ১৬০৯ খৃঃ অব্দের ১৬ই এপ্রিল তারিখে, হকিন্স প্রবাসযাত্রার পথে, বহু কষ্ট ভোগ করিয়া মোগল-দরবারে উপস্থিত হন । 4 হকিন্স তুরুস্কের ভাষা জানিতেন । কাজেই বাদসাহের নিকট মনোভাব প্রকাশ করিতে, তাহাকে বিশেষ কষ্ট পাইতে হয় নাই। জাহাঙ্গীরও তাহার উপর যথেষ্ট সন্তুষ্ট হন । বাদসাহের এ সন্তোষের পরিণাম পরিশেষে এতটা বেশী হইয়া পড়ে—যে তিনি এক সুন্দরী আরমানী যুবতীকে নির্বাচিত করিয়া, তাহাকে পত্নীরূপে গ্রহণ করিৰার জন্ত, হকিন্সকে মহ পীড়াপীড়ি করিয়া বসেন। কিন্তু ছকিন্স ত এদেশে প্রজাপতির নিৰ্ব্বন্ধে আবদ্ধ হইতে আসেন নাই । কাজেই নিজের স্বাৰ্থ বশে, এই স্ত্রীরত্বের জন্ত তিনি ব্যাকুঠ ন হইয়া, স্বদেশয়, স্বজাতীয় বণিকগণের স্বর্থরক্ষার জন্য বাদসাহের নিকট এক জোর মীরজী করিয়া বললেন। তাছার বাসনা সিদ্ধ হইয়াও পূর্ণরূপে হইল না। বাদসহ ইংরাজী