পাতা:কলিকাতা সেকালের ও একালের.djvu/২১৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


›ፃb” কলিকাতা সেকালের ও একালের । বৃদ্ধি করা যুক্তিসঙ্গতনহে ভবিল শিবাজী, ওরঙ্গজেবের উপর ক্রল একটি নূতন চাল চালিলেন । پیامه অঙ্গিয়ারের সময়ে, ভারতের পশ্চিমপোকুলে বোম্বে একটা প্রধান বলা হইয়া উঠে। পটুগীজদের আমলে, বোম্বের অধিবাসী সংখ্যা দশহাজার ছিল । অঙ্গিরায়ের আমলে, বোম্বের লোকসংখ্যা ৬০ হাজারে দাড়ায়। পূৰ্ব্বে বোম্বে বন্দরের রাজস্ব ছিল ২৮২৩ পাউণ্ড। অঙ্গিয়ারের সময়ে, তা ৯২৫৪ পাউণ্ডে দাড়ায় । বোম্বের এই অসম্ভব উন্নতি, মোগল-সম্রাট ও মহারাষ্ট্র পতি শিবাজী, উভয়েরই মনোযোগ আকর্ষণ করিয়াছিল। শিবাজীর সহিত ইংরাজের এ আত্মীয়তা, দক্ষিণাত্য উপকূলের মোগল রাজকৰ্ম্মচারীদের বড় ভাল লাগিল না । শিবাজী যে ইংরাজদিগকে অবা{ে বাণিজ্য-সত্বাদি দানে হস্তগত করিয়াছেন, তাহার প্রতিকারের কোন উপায়ই নাই। মোগল-শাসনকৰ্ত্তারা নানা দিক হইতেই ব্যতিব্যস্ত। ভারতের পশ্চিমোপকুলে ইংরাজের ও শিবাজীর নৌ-বাহিনী একত্র সন্মিলিত। মালাবার উপকুলে, সিদিজাতীয় আরব-জলদসু্যদের প্রভাব দিনে দিনে পরিবর্ধিত। এই সিদিগণ, এতদূর ক্ষমতাশালী হইয়া উঠিয়াছিল, যে প্রয়ে: জন হইলে, তাহারা দক্ষিণাত্যের হিন্দু-মুসলমান প্রদেশাধিপতিদের সেনা প্রদানে সাহায্য করিত। এমন কি, মোগলসম্রাট ঔরঙ্গজেবও কোন কোন সময়ে, এই ভীষণ জলদসু্যদের সাহায্যপ্রার্থ হইয়াছিলেন। ১৬৭২থ অৰে এই সিদি দস্যগণ, বোম্বাই উপকুলে নামিয়া, মহারাষ্ট্র রাজ্য লুণ্ঠনের অভি প্রায় প্রকাশ করে । কিন্তু আঙ্গিয়ার ঘৃণার সহিত তাহদের প্রস্তাব উপেক্ষা করেন । ইহাতে সিদিরা ক্রুদ্ধ হইয়া, নানা উপায়ে অঙ্গিয়ারকে ব্যতিব্যস্ত করিয়া তোলে। কিন্তু তিনি অসীম সাহসের সহিত তাহাদের প্রত্যেক কার্য্যেই প্রতিযোগীতা করিতে লাগিলেন। শিবাজী ও ঔরঙ্গজেব, কেহই ইংরাজ বণিকদের এই কাৰ্য্য-প্রণালীতে অসন্তুষ্ট হয়েন নাই। আঙ্গিয়ারের চেষ্টায়, বোম্বাই সেই সময়ে—দেশীয় অধিবাসীদের চক্ষে, বিপক্সের আশ্র্য স্থান বলিয়া বোধ হইল। হিন্দু মুসলমান অধিবাসী, বিশেষতঃ হিন্থ বেনিয়া ও আরমাণী ব্যবসায়ীরা, বোম্বের নিরাপদ অবস্থা অনুভব করিয়া, তথায় বসবাস করিতে লাগিল। অঙ্গিয়ারের চেষ্টাতেই ইংরাজ প্রতিষ্ঠিত বোম্বাই, তৎকালে ভারতের পশ্চিমোপকুলে এক স্বরক্ষিত বন্দররপে পরিণত হয়। ১৬৭৯ খ, অন্ধের ৩ জুন তারিখে,মুরাটে অদিয়ার দেহত্যাগ করেন। জব চাৰ্শকের নাম, যদি কলিকাতা প্রতিষ্ঠার সহিত অবিচ্ছেষ্ঠ ভাবে সংযুক্ত