পাতা:কলিকাতা সেকালের ও একালের.djvu/২৪১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ষষ্ঠ অধ্যায় । २ ०७ রবএকটা যুদ্ধের আয়োজনে বড়ই ব্যস্ত। তাহা হইলেও আমাদের অভীষ্ট রি কোনরূপ ব্যাঘাত হইল না। ৮ই মে, আমরা নবাবের নিকট বিদায় লইয়া গন্তব্যপথে যাত্রা করিলাম।” উপরে আমরা ক্রটনের রোজনামচা হইতে উদ্ধত করিয়া যাহা বিবৃত তাহা হইতে পাঠক জানিতে পরিবেন, ইংরাজ বণিকগণ কতকষ্টে, পূৰ্ব্বপ্রথমে বঙ্গপ্রদেশ-ভুক্ত উড়িষ্যার মধ্যে, বাণিজ্য ব্যাপারের ছাড় ও স্বত্ব fাভ করেন । এই উড়িষ্যার বাণিজ্য-স্বত্ব লাভই, ইংরাজের বঙ্গের বাণিজ্যের প্রথম সোপান । এজন্য আমরা আবার ব্রুটনের কাহিনী অনুসরণ করিতেছি । মিঃ ক্লটন বলিতেছেন—“মালকান্দির রাজসভায় যাহা কিছু ঘটিয়াছিল, লঙ্গ আমি সরলভাবে বলিয়া গেলাম। এক্ষণে নবাব সম্বন্ধে দুই চারি কথা বলিব । নবাব এই পাষাণ প্রাচীরময় তুর্গমধ্যে, দরবারাদি করিলেও এবং এই দুর্গমধ্যে অসংখ্য প্রাসাদ কক্ষ বর্তমান থাকিলেও, তিনি এতন্মধ্যে না থাকিয়া রাত্রিতে স্বতন্ত্র তাবুতে অবস্থান করিতেন। এই তাবুর মধ্যে ঠাঙ্গার বিশ্বাসী অনুচরবর্গ, সেনা ও সেনাপতিগণ ভিন্ন আর কেহই থাকিতে ধারিত না। উড়িষ্যার স্বাধীন হিন্দু নৃপতি, মুকুন্দদেবের পরিত্যক্ত প্রাসাদে নবাব যে রীত্রি যাপন করিতেন না, তাহার কারণ এই—ষ্ঠাহীর মনে একটা ভ্ৰান্ত বিশ্বাস ছিল, যে অপরের ব্যবহৃত রাজপুরী, কখনও মোগল শাসনকৰ্ত্তার আরমিকক্ষে পরিণত হইতে পারেন । নবাবের নৈশ-শিবিরে তিন শত রমণী বাস করিতেন । র্তাহীদের সকলেই সদ্বংশজাত । * (৯ই মে)। নবারের রাজসভা হইতে বিদায় লইয়া, আমরা সমস্ত জিনিষ পত্র বাধিয়া কটকাভিমুখে যাত্রা করিলাম । ১০ই তারিখের অপরাহ্নে

  • Although the Palace of the Nabob be so large in extent and so magnificient in structure, yet he himself will not lodge in it but every light he lodgeth in tents with his most trusty servants and guards about him. For it is an abomination to the Moghals (Which are whitemen ) 0 rest or sleep under the roof of a house that another man hath built or his own house. And therefore he was building a palace which he rposed should be a fabric of rest and future remembrance of his *nown ; he likewise keepeth three hundred women who are all of them