পাতা:কলিকাতা সেকালের ও একালের.djvu/২৪৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


2● ● কলিকাতা সেকালের ও একালের । সমাধিরচনা করিয়া লইল। এক বৎসরের মধ্যে, পাচ ছয়জন ফ্যাক্টার মৃত্যুম্বরে পতিত হইলেন। “সোয়ান” জাহাজের পর “টমাস” বলিয়া আর একখানি জাহাজ বাণিজ্য-দ্রব্যাদি লইয়া পুনরায় উড়িষ্যার বন্দরে উপস্থিত হয়। দুর্ভাগ্যক্রমে "জল-হাওয়ার দোষে, টমাস পোতবক্ষ মধ্যে, চারিজন নাবিক মৃত্যুমুখে পতিত হয়, এবং জাহাজের অনেক মাঝি-মোল্লা ভয়ানকরপে পীড়িত হইয়া পড়ে। * বিধাতার একান্ত ইচ্ছা, যে কৰ্ম্মবীর ইংরাজের বঙ্গদেশে বাণিজ্যার্থে প্রবেশ করিবেন। এই বঙ্গদেশ হইতেই, তাহীদের সৌভাগ্যসূচনা হইবে, এই শস্যখামলা, ফলজলপূর্ণ বঙ্গে, তাহার রাজসিংহাসন প্রতিষ্ঠা করিবেন, একদিন সমগ্র ভারতের ভাগ্যবিধাতা হইবেন, কাজেই তাহণদের উড়িষ্যার বাণিজ্য সম্বন্ধে নানাবিধ দৈববিপত্তি উপস্থিত হইল। এই সময়ে আবার মগ স্কুল দসু্যরা, উড়িষ্যার উপকূলে ভয়ানক উৎপাত আরম্ভ করিল। তাহার। ইংরাg. দের কয়েকখানি বোট আটক করিয়া, বাণিজ্য দ্রব্যাদি লুণ্ঠন করে। ইস্তার উপর পটুগীজ ও দিনামারেরাও ইংরাজদের প্রতিযোগিতা আরম্ভ করিল। এই সমস্ত অসুবিধার সহিত, ক্রমাগত: প্রতিদ্বন্দিতা করিয়া, কার্টরাইট বিশেল কিছুই করিয়া উঠিতে পারিলেন না । হরিহরপুর ও বালেশ্বরে তাহদের যে কুঠী স্থাপিত হয়, তাহাই কেবল বৰ্ত্তমান রহিল। কার্টরাইটু, পুরী ও হিজলীতে দুইটা নূতন বাণিজ্য কুঠ খুলিবার সংকল্প করিয়াছিলেন, কিন্তু তাহা কার্য্যে পরিণত করিতে পারিলেন না । ঘটনাবশে হরিহরপুর যে নদীর তীরে অবস্থিত ছিল, তাহাতে ক্রমশ: চর পড়িতে লাগিল । কয়েক বৎসর ধরিয়া ইংরাজের উড়িষ্যার কুঠ লইয়া বড়ই বিব্রত হইয়া পড়িলেন। মান্দ্রাজে উড়িষ্যার কুঠার বিশৃঙ্খলা সম্বন্ধে, ক্রমাগত অভিযোগ পত্র যাইতে লাগিল । ইহার ফলে, মান্দ্রাজ হইতে একজন অধ্যক্ষ প্রেরিত হইলেন । তিনি বহু অনুসন্ধানের ও চিন্তার পর বালেশ্বর সহরেই একট নূতন বাণিজ্য-কুঠী স্থাপন করেন । এই কুঠীর কৰ্ম্মচারী সংখ্যাও বাড়াইয়৷ দেওয়া হয়। তিনি যতদিন বালেশ্বরে ছিলেন, কৰ্ম্মচারীরা ততদিন কোন বিষয়ে কোনরূপ আপত্তি উত্থাপন করিল না, বা অবাধ্যতা দেখাইল না। কিন্তু পূৰ্ব্বোক্ত কৰ্ম্মচারী মাক্সাজে ফিরিয়া আসিবার পুরই, বালেশ্বরের

  • Hedges Diary. I 11, 181. Do Do 1 1 1. 181,