পাতা:কলিকাতা সেকালের ও একালের.djvu/৫২৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সপ্তদশ অধ্যায় 8s》 পরিবেন।” তখনকার পাট্ট কিরূপ ছিল, তাহার বাঙ্গালা ও ইংরাজী নমুনা আমরা ইতিপূৰ্ব্বে দিয়াছি। আজকাল যাহ "ষ্ট্রাওরোড" বলিয়া পরিচিত, যাহার উপর এখন ট্রাম চলিতেছে—তাহা তখন নদীগর্ভে ছিল। ভাগীরথীর শ্ৰেণত আসিয়া, তখন পুরাতন ফোট-উইলিয়াম দুর্গ-প্রকার চুম্বন করিত। নদীর কিনারা কতদূর বিস্তৃত ছিল, তাহার প্রমাণ এখনও আছে। নদীকুলের যে ঘাট দিয়া সেরাজের সেনারা দুর্গ-প্রবেশ করিয়াছিল, তাহার চিহ্নও লর্ড কর্জন বাহাদুরের চেষ্টায় মুরক্ষিত। পাঠক, রেলওয়ে আফিসের মধ্যের উঠানে প্রবেশ করিলেই ইহা দেখিতে পাইবেন । আজকাল যেখানে বড়বাজারের পানপোস্তা, রাজার চক্ প্রভৃতি বৰ্ত্তমান —তাহাও নদীগর্তে ছিল। হিন্দু ব্যবসায়ীরা নৌকায় করিয়া মাল আনিয়া বড়বাজারের নজরেশ্বর ঘাটে নৌকা ও ডিঙ্গা ভিড়াইত। ' বৰ্ত্তমান করলাঘাট ও চাদপাল ঘাটের মধ্যবৰ্ত্তী স্থানে, একটী খাল ছিল । এইখালে বড় বড় নৌকা যাইতে পারিত । আজকাল যাহা হেষ্টিংস্ ইট্‌ বলিয়া প্রখ্যাত, যাহার আশে পাশে প্রাসাদতুল্য বাড়ী, সরকারী আপিস, সেই রাস্ত। খালের গর্ভে ছিল । , এই খাল, বরাবর মাঠের ও জঙ্গলের মধ্য দিয়া, ক্রিক্ রে ও ওয়েলিংটন স্কোয়ার পর্য্যন্ত বিস্তৃত ছিল। ইহার পর বেলিয়াঘাটার মধ্য দিয়া মারও কিছুদূর forgi, on titoti di Salt Water Lake to afos মিশিয়াছিল। এই খালের দুই দিকেই পঙ্কিল নীলা-নর্দামা, দুই ধারে জঙ্গল ও বড় বড় গাছ ছিল। হেষ্টিংস ষ্ট্রীটে যে স্থানে এখন সেন্ট জন গির্জা বর্তমান, তাহার পার্থেই কলিকাতার পুরাকালের গোরস্থান ছিল। এই সমাধিক্ষেত্রে, এখনও কলিকাতা-প্রতিষ্ঠাতা জব চার্ণক, কলিকাতায় দুর্গ-প্রতিষ্ঠাকারী স্যর জন গোল্ডস্বরা, কোম্পানীর চিকিৎসক স্বনামখ্যাত ডাক্তার হামিলটান প্রভৃতি সেকালের অনেক লোকের সমাধি আজও বৰ্ত্তমান। তখন বৰ্ত্তমান সেন্ট জন গিজাৰ্ণ নিৰ্ম্মিত হয় নাই । এই স্থানের এক অংশে সমাধিক্ষেত্র ও অন্ত অংশে কোম্পানীর এক হাসপাতাল ছিল । এই খালের আশে পাশে, ঝোপ, বড় বড় গাছ, মধ্যে মধ্যে পঙ্কিল জলপূর্ণ নালা ও ডোব ছিল। এই স্থান হইতে একট অপ্রশস্ত পথ-বাহির হইয়া আজকাল ফুেথানে গড়ের মাঠের কেলা আছে ও পূৰ্ব্বে ষে স্থানকে গোবিন্দপুর বগিত, সেই পৰ্য্যন্ত ব্যাপৃত ছিল। আজকাল যাই এস্প্লানেড,