পাতা:কলিকাতা সেকালের ও একালের.djvu/৬৭৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কলিকাতা সেকালের ও একালের । مON\ \ ইলাইজা ইম্পি ও র্তাহার সহযোগীগণ। ইম্পির বিচারে, তৎকালে প্রচলিত ইংলওঁীয় আইনানুসারে, মহারাজ নন্দকুমার প্রাণদণ্ডে দণ্ডিত হয়েন। নন্দকুমারের মোকদম সম্বন্ধে জ্ঞাতব্য কথা, তাহার ফাসির দিনের ঘটনা প্রভৃতি সম্বন্ধে নানা কথা পাঠক পরে দেখিতে পাইবেন। বর্তমানে এই টুকু জানিয়া রাখন—কলিকাতায় ইহাই প্রথম ব্রাহ্মণের ফণসী ৷ এই ব্যাপার লইয়া তখন কলিকাতায় একটা মহা হুলস্থূল উপস্থিত হয়। অনেক বাঙ্গালী এই শোচনীয় ঘটনায় মৰ্ম্মাহত হইয়া, কলিকাতা ত্যাগ করিয়া, ভাগীরথীর অপর পারে বাস উঠাইয়া লইয়া যান । হেষ্টিংসের প্রতিপক্ষ সহযোগীগণের মধ্যে, মন্সন সাহেব ১৭৭৬ খৃঃ অব্দে - প্রথমে মৃত্যুমুখে পতিত হন। কলিকাতায় আসিবার পর, এক দিনও তাহার স্বাস্থ্য ভাল যায় নাই। ১৭৭৬ খৃঃ অব্দে বায়ু পরিবৰ্ত্তনের জন্য তিনি হুগলীতে যান ও সেই স্থানেই তাহার মৃত্যু হয়। তৎপরে তাহার মৃতদেহ কলিকাতায় আনিয়া সমাহিত করা হয়। মন্সন সাহেবের পত্নীও স্বামীর অনুগামিনী হন । এই দম্পতির সমাধিস্তম্ভ, এখনও পার্কস্ট্রীটের পুরাতন গোরস্থানে বর্তমান । ইহার পর বৎসরে জেনারেল ক্লেভারিংও গতাস্থ হন ।* ক্লেভারিং ও মন্সনের মৃত্যু হওয়ায়, ফ্রান্সিস এক পড়িলেন। হেষ্টিংসের ক্ষমত পুনরায় বাড়িয়া উঠিল। ১৭৮৪ খৃঃ অব্দে অর্থাৎ ইহার তিন বৎসর পরে ফ্রান্সিসও কলিকাতা ত্যাগ করিয়া যান।f

  • সেকালের “রোপ-ওয়াক " ( আজকালকার মিশনরোর মধ্যে ) যে বাটতে বর্তমান পিগট চ্যাপম্যান কোম্পানীর অফিস আছে, সেই বাটতেই মন্সন সাহেব বাস করিতেন। যে বাটটি আজকাল জে. টমাস কোম্পানীর দখলে, সেই বাটীতে জেনারেল ক্লেভারিংএর মৃত্যু হয়। এই দুইটা বাটার ভিত্তিগাত্রে, লর্ড কর্জন দুইটা প্রস্তর ফলক মারিয়া দিয়াছেন। সার ফিলিপ ফ্রান্সিস–বৰ্ত্তমান রয়েল-এক্সচেঞ্জের অধিকৃত বাটীতে বাস করিতেন। ফ্রান্সিসের পূৰ্ব্বে, লর্ড ক্লাইভ .এই বাটীতে বাস করি। গিয়াছেন। বারওয়েল সাহেব—খিদিরপুরে থাকিতেন। কলিকাত সহরে তাহার আবাসস্থান কোনটা ছিল, তাহ। আমরা ঠিক বলিতে পারি না। হেষ্টিংস সাহেব— বর্তমান হেষ্টিংস প্লুটে, বরণ কোম্পানীর অধিকৃত বাটীতে বাস করিতেন।

+ হেষ্টিংসের সহিত ফুন্সিসের কোন দিনই বনিবনাও হয় নাই। কেন্সিলের এক অধিবেশনে, ফ্রান্সিসের চরিত্র সম্বন্ধে হেষ্টিংস সাহেব কোন কঠিন মন্তব্য প্রকাশ করেন। এই মন্তব্যে তিনি ফ্রান্সিসকে প্রকারান্তরে মিথ্যাবাদী বলিয়া উল্লেখ করেন। এ অপমান বাক্ষা সহিতে ন পারিয়া, ফ্রান্সিস হেষ্টিংসকে দ্বনযুদ্ধে তাহান করেন। বস্তৃমান জুওলজিকাল উদ্যানের বা আলিপুরের পশুশালার পশ্চাতে, শাস্ত্রী লাইনের