পাতা:কলিকাতা সেকালের ও একালের.djvu/৭৩৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


а о о কলিকাতা সেকালের ও একালের । মধ্যে বাঙ্গালী ধনীর বাট লুঠ করিবার জন্ত সাহেব-ডাকাত, আর তাহাদের পদপ্রদর্শক একজন বাঙ্গালী গোয়েনা । ডাকাতগণ এই সময়ে কলিকাতায় চৈতনশীল নামক এক ধনীর বাটীতে ডাকাতি করে। চৈতনশীলের চীনাবাজারে একখানি দোকান ছিল। এই ডাকাতের দলে সত্তর জন বেকার ভবঘুরে সাহেব থাকিত ও তাহার। এত দুঃসাহসী, যে সেই সময়ের কলিকাতার প্রধান ব্যাঙ্ক—"হিন্দুস্থানব্যাঙ্ক’ পৰ্য্যন্ত লুঠ করিবার কল্পনা করিয়াছিল ; কিন্তু তাহ কাৰ্য্যে পরিণত করিতে পারে নাই । মোকদমীর বিবরণ ও সাক্ষীর জবাননন্দী হইতেই এই ডাকাতি সম্বন্ধে সমস্ত ঘটনা পাঠক জানিতে পরিবেন। বিচার অবশ্য সুপ্রীমকোর্টে হইয়াছিল। কলিকাতা সুপ্রীমকোট । ( মিষ্টার জটিস তাইড সাহেবের এজলাস। ) ফরিয়াদী-অনারেবল কোম্পানী | আসামীগণ । মিঃ রুসো বাহাতুর ও চৈতন- , বুফাস্ শীল । , জারান , ব্ল্যাঙ্ক , কোয়েল , ফ্যাসিনেভ, মোহনপাল চৈতনশীলের জবানবন্দী । আমি একজন হিন্দু-ব্যবসায়ী। চীনবাজারে আমার একথানি দোকান আছে। গত ২৮এ মাঘ তারিখের রাত্রে, আমার বাটতে ডাকাতি হইয়া গিয়াছে। তখন রাত্রি দুইটা। এই সময়ে, সহসা আমার ঘুম ভাঙ্গিয়া যায়। বাড়ীর মধ্যে অনেকগুলি লোকের গলার আওয়াজ শুনিতে পাইয়া, আমি বিছানা হইতে উঠিয়া পড়ি। দেখিলাম—বাটীর সদর-দরোজা খোলা । তখন আমি খুব উচ্চৈঃস্বরে আমার চাকরদের ডাকিতে লাগিলাম। একজন চাকর, আমার ডাক শুনিয়া, উঠানের দিকে গেল। কিয়ৎক্ষণ পরে আমি তাহার চীৎকার শত্ৰ শুনিতে পাইলাম। তার পর আর কোন সাড়া শব্দ নাই। অনুমানে বুঝিলাম, ডাকাতের তাহার মুখ বধিয়া ফেলিয়াছে। কথাটা কহিবার বা চেচাইবার কোন উপায় রাখে নাই। এই সময়ে আমি বুঝিতে পারি, ডাকাতের