পাতা:কলিকাতা সেকালের ও একালের.djvu/৭৩৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


দ্বাবিংশ অধ্যায় । 이o》 অামার অন্দরমহলেও প্রবেশ করিয়াছে। স্ত্রীলোকেরা জাগিয়া উঠিয়া ভয়ে চীৎকার করিতেছে । বাহিরের মহলে, আমার একটা গুদামঘর ছিল । ডাকাতের একটী শাবল দিয়া, সেই ঘরের হুড়কা খুলিয়া গুদামের মধ্যে প্রবেশ করিল। তার পর দেখিলাম, ডাকশতেরা আমার শয়ন গৃহে প্রবেশ করিয়াছে। আমি প্রাণভয়ে মশারির আড়ালে লুকাইলাম। ডাকাতেরাও সেই গৃহে কাহারও সাড়াশব্দ না পাইয়া, একটা কাঠের সিন্ধুক ভাঙ্গিয়া সোণারূপার জিনিসগুলি লইয়া চলিয়া গেল। একখানি চৌকীর উপর কতকগুলি নূতন কাপড় ও পরিচ্ছদাদি ছিল। প্রস্থান সময়ে ডাকাতেরা তাহাও লইতে ভুলে নাই । ডাকাতদের পোষাক-পরিচ্ছদ দেখিয়া আমার বোধ হইল—তাহারা -সকলেই সাহেব। তবে তাহণদের সঙ্গে আর একজন লোক ছিল, তাহার বেশ-ভূষা দেখিয়া, তাহণকে বাঙ্গালী বলিয়াই বোধ হইয়াছিল। আমার ক্ষতির পরিমাণ, আনুমানিক চারি হাজার টাকা । ( কতকগুলি বামাল এই সময়ে সাক্ষীকে দেখান হয় । সাক্ষী সেগুলি সনাক্ত করিয়া বলে, এসবি আমারই জিনিস )। চৈতনশীলের চাকরের জোবানবন্দী। গত ১৮ই মাঘ তারিখে রাত্রি আন্দাজ দুটোর সময়, আমার মনিবের বাটীতে ডাকাত পড়ে। ঐ সময়ে আমি গোয়াল-ঘর সংলগ্ন একট চালায় ঘুমাইতেছিলাম। রাত্রি দুইটার সময় বাড়ীর উঠানে, অপরিচিত লোকজনের কথা শুনিতে পাইয়া, আমি বিছানা হইতে উঠিয়। বাহিরে আসি । দেখিলাম, উঠানে তের চৌদ্দজন সাহেব দাড়াইয়। তাহাদের দুই তিনজনের হাতে একটা করিয়া জলন্ত মোমবাতি। সাহেবের আমায় দেখিতে পাইয়া, তখনই আমার দিকে দৌড়াইয়া আসিল । তাহারা মুহুৰ্ত্ত মধ্যে দড়ি দিয়া আমার হাত পা বাধিয়া ফেলিল, আর একজন আমার বুকের উপর বসিল । আমি ভয়ে চীৎকার করিতে পারিলাম না, বা কোথায় কি হইতেছে দেখিতে পাইলাম না । তাহার পর আমি সিন্ধুক ও দরজা ভাঙ্গায় শব্দ পাইলাম । কাজ শেষ হইলে, তাহারা বাড়ী হইতে চলিয়া গেল । তাহাদের দলে কেবল একজন লোক ছিল সে লোকটাকে বাঙ্গালী বলিয়াই বোধ হইয়াছিল। গোর-সার্জন ওগিলবি সাহেবের জোবানবন্দী। গত ৬ই মার্চ তারিখে, আমি মিষ্টার স্মিথের ( জষ্টিস অব দি পিস ) নিকট হইতে