পাতা:কলিকাতা সেকালের ও একালের.djvu/৭৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


তৃতীয় অধ্যায়। ால் वक्षश्न इहेण । अठान भरन भएन जांविष्णन-“भांभांब यश् निर्सीजरनब्र মূলই আম্বার পিতৃব্য । পিতা—সকল কার্ধ্যেই তাহার মন্ত্রণাধীন। তিনিই আমার বিরুদ্ধে নানারূপ কুমন্ত্রণা দিয়া, পিতার কর্ণ বিষদিপ্ত—করিয়া তুলিয়া এই ব্যাপার ঘটাইয়াছেন। প্রতাপের এই কুসংস্কার-কলে ভৰিযাতে র্তাহাকে পিতৃব্য-হত্যার মহা-কলঙ্কে লিপ্ত হইতে হইয়াছিল। বহু বাধা-বিঘ্ন, পথকষ্ট সহ করিয়া, প্রতাপ আগরীয় উপস্থিত হইলেন । যথাসময়ে উপযুক্ত উপঢৌকনাদি সহ দরবারে উপস্থিত হইয়া, সম্রাটকে অভিবাদন করিলেন । বিশাল-দর্শন আমখাস, দেওয়ান-খাস—তাহাদের মণি খচিত স্তম্ভ—অসংখ্য অখ-হস্তী-উস্ট্র-বাহিত অক্ষৌহিণী মোগলৰাহিনী পিপীলিকা শ্রেণীর স্তায় পদাতিক শ্রেণী দেখিয়া, তিনি মোগলসম্রাটের ঐশ্বৰ্য্য ও শক্তির পরিচয় পাইলেন । w - ক্রমে—রাজ-সভার অনেক গণ্য-মান্য লোকের সহিত প্রতাপের জালাপ পরিচয় হইল। প্রতাপ যখন ভাবিতেন—যে এই মানসিংহের বাহুবলেই আকবর-সাহের রাজ্য সুরক্ষিত, এই ঢোডরমলের অমাকুষিক প্রতিভাবলে, রাজ্যের জাভ্যস্তরিণ শাসন-বিভাগ সমূদ্রত তখন, হিন্দুর শক্তির উপর তাহার দৃঢ় বিশ্বাস হইল । তিনি মনে মনে ভাবিলেন, এই হিন্দু—ভিন্ন ক্ষেত্রে শক্তি ও অবসুর যথাযথ ভাবে পরিচালনা করিলে—নিশ্চয়ই ভারতবর্ধকে স্বতন্ত্র স্বাধীন রাজ্য সমূহে-বিভক্ত করিয়া শাসন করিতে পরিবে। এই সব ব্যাপার দেখিয়াই, তাহার মনে স্বাধীনতা স্পৃহা অঞ্চুরিত হইয়া:উঠে । আগরায় অবস্থান কালে, অনেক পদস্থ আমীর ওমরাহগণের সহিত প্রতাপের আলাপ পরিচয় হয়। কিন্তু ভাগ্য ক্রমে, একদিন বাগানের সহিত সাক্ষাৎ লম্বন্ধে তাহার আলাপের মুযোগ ঘটিল। আকবর সাহ, সভাসদগণকে মধ্যে মধ্যে এক একটী সমস্যা-পূরণ করিতে দিতেন। একদিন প্রতাপ রাজসভায় উপস্থিত—এমন সময়ে বাদসাহ, তাহার পাশ্ববৰ্ত্তী আমীর ওমরাহগণকে বলিলেন—“লেত ভুজঙ্গিনী-যাত চলি হেঁ” এই সমস্ত পূর্ণ কর। তাহার পার্শ্ববর্তী কবি ও পণ্ডিত সভাসদগণ বাদসাহ প্রদত্ত সমস্যাটা প্রত্যেকেই বিভিন্ন ভাবে পূরণ করিলেন–কিন্তু বাদসাহ, তাহার একটাও পছন্দ করিলেন না । প্রতাপও মনে মনে এই সমস্যার কথা আলোচনা, করিতেছিলেন । কিন্তু তিনি বাসাহের অপরিচিত। অতি নম্রভাবে, দিল্লীশ্বরের সন্নিহিত হইয়া সসন্ধানে কুর্দশ করিয়া, প্রতাপ বলিলেন—"হাপন ! এ দাস