পাতা:কলিকাতা সেকালের ও একালের.djvu/৭৯১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ত্রয়োবিংশ অধ্যায় । ዓ¢ፃ লপথে ১৬১৩ মাইল। এই পথ অতিক্রম করিতে ষ্টীমারখানির তিনশত ঘণ্টা লাগিয়াছিল। ধরিতে গেলে গড়পড়তায়, ষ্টীমারখানি প্রতি ঘণ্টায় ৪ সাড়ে চারি মাইল গিয়াছিল। তাহার পর আর একবার এই ষ্টীমারথানি এলাহাবাদ অবধি অগ্রসর হয়। কিন্তু বালির চড়ায় বসিয়া যাওয়ায়, বড়ই বিপত্তি ঘটে। ১৮২৯ খৃঃ অব্দের এপ্রিল কিম্বা মে মাসে, দ্বিতীয়বার এই ষ্টীমার পুনরায় কাশী যাত্রা করে। এবারে ২১ দিনে কাশী পৌছাইয়াছিল। ইহা মির্জাপুর পৌছিবার চেষ্টা করিয়াছিল বটে, কিন্তু নদীর জল কম হওয়ায় পারে নাই । লর্ড উইলিয়াম বেন্টিঙ্ক সাহেব, এই সময়ে তারতের গবর্ণর-জেনারেল। বহীতে ষ্টীমার সহায়তায় জলপথে যাত্রার পথ সুগম হয়, তজ্জন্ত তিনি যথেষ্ট উৎসাহ দান করেন । র্তাহার চেষ্টায়, কলিকাতায় প্রথম লৌহ নিৰ্ম্মিত ষ্টীমার নিৰ্ম্মিত হয়। এই জাহাজের নাম “লৰ্ড উইলিয়াম বেটিক ” খিদিরপুর গবর্ণমেণ্ট ডকইয়ার্ড হইতে নিম্নলিখিত জাহাজগুলি প্রস্তুত হয়। (১) হরিণঘাটা (১৮৪১), (২) ব্রহ্মপুত্র (১৮৪১), (৩) ইণ্ডস্ (১৮৪২), { 8 ) দামোদর (১৮৪৩), ( ৫ ) মহানদী (১৮৪৬), (৬) লর্ড উইলিয়াম বেটিক (১৮৪৫), ( ৭ ) নৰ্ম্মদ (১৮৪৫)। উল্লিখিত ঘটনাবলী হইতে পাঠক বুঝিতে পারিবেন, এই মহানগরী কলিকাতা, এক সময়ে সমগ্র ভারতের রাজধানী কলিকাতা, বর্তমানে বঙ্গদেশের অন্যতম রাজধানী কলিকাতা, জব চাণকের আমল হইতে (১৬৯৮ খৃ: ) আর এই ১৯১৪ ५: अग्न পৰ্য্যস্ত ২২৬ বৎসরের ঘটনা ম্রোতের মধ্য দিয়া, অতি ধীরে ধীরে গঠিত হইয়াছে। সমুদ্রমেখলা বোম্বের প্রাকৃতিক সৌন্দৰ্য্য ছাড়িয়া দিলে, কলিকাতার মত স্ববৃহৎ নগরী ভারতবর্ষে আর দ্বিতীয় নাই। দুইশত বৎসর পূর্বের বন জঙ্গল পরিপূর্ণ, বাদাভূমি-সমাকীর্ণ, ব্যাভ্রাদি শ্বাপদগণের নিবাসভূমি, সুতানুটী, কলিকাতা, ও গোবিন্দপুরের পরিবর্তে, আজ আমরা এক প্রাসাদসৌধময়ী, স্বল্প-সৌন্দৰ্য্যপূর্ণ সুবৃহৎ নগরী দেখিতে পাইতেছি। কলিকাতা প্রতিষ্ঠাতা জব চার্ণকের পক্ষে, সমাধিগর্ভ হইতে উঠিয়া খাসা ঘদি সম্ভবপর হইত, তাহা হইলে তিনিও ঠিক বুঝিতে পারিতেন নী—মাত্র একখানি পাকা বাড়ী অর্থাৎ সাবর্ণ-মজুমদারদের