পাতা:কলিকাতা সেকালের ও একালের.djvu/৮০৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


११० কলিকাতা সেকালের ও একালের । বিলডিংএর অধিকৃত স্থানের মধ্যে র্তাহার বাট ছিল। এই বাজ চারিদিকে স্ববৃহৎ কম্পাউণ্ড থাকায়, যাটার সীমা কিডস্ট্রীট পৰ্য্যন্ত বিস্তৃত হইয়াছিল। ম্পিক সাহেবের এই বাটতে একদিন একটা ভয়ানক ঘটনা ঘটে। ১৭৮৯ খ্ৰীষ্টাব্দে তিনি কৌন্সিলের-মেম্বর ছিলেন। র্তাহার বাটীর ফটকে সিপাহী পাহার। থাকিত। একজন শিখ, কোন অত্যাচারের প্রতিকার প্রার্থনা জন্য র্তাহার নিকট এক দরখাস্ত করে। স্পিক্‌ সাহেব শিখের দরখাস্ত লইতে অস্বীকার করায়, সেই শিখ কুদ্ধ হইয়া সাহেবের এক ভৃত্যকে হত্যা করিয়া উপরের ছাদে উঠিয়া যায় ও অপর লোকদিগকে হত্যা করিবার ভয় দেখায়। শেষ সিপাহিদিগকে ডাকিয়া, ম্পিক সাহেব সেই উন্মত্ত শিখকে হত্যা করান। এই যাড়িট স্পিকু সাহেব, পরিশেষে গবর্ণমেন্টকে ভাড়া দিয়াছিলেন। গবর্ণমেণ্ট এই বাটীতে “সদর-কো" বলিয়া একটি আদালত প্রতিষ্ঠা করেন । এই জন্য পথটার “সদর-স্ট্রট” নামকরণ হইয়াছে। লিণ্ডসে ষ্ট্রীট। এই লিওসে-স্ট্রীট, বর্তমান মিউনিসিপ্যাল বাজারের নিকট । ইহার পার্থেই কলিকাতার স্ববিখ্যাত গ্রাণ্ড-অপেরা-হাউস। এই রাস্তাটি বছদিনের। অনারেবল রবাট লিওসে, কোম্পানীর অধীনে একজন উচ্চপদস্থ কৰ্ম্মচারী ছিলেন। লিওসে সাহেব, ওয়ারেণ হেষ্টিংসের আমলে একজন রাইটার বা সিভিলিয়ান রূপে এদেশে আসেন (১৭৭২ খৃঃ) । কয়েক বৎসর কলিকাতায় থাকিয়া তিনি ১৭৭৭ খ্ৰীষ্টাব্দে, ঢাকার কলেক্টর পদে নিযুক্ত হন। তখন কোম্পানীর সিভিল-সার্ভেন্টগণ, বেতন কম পাইতেন বলিয়া, অর্থাগমের জন্ত নানারূপ ব্যবসায়ে লিপ্ত হইতেন। লিওসেরও এরূপ অনেক গুপ্ত কারবার ছিল। র্তাহার প্রধান ব্যবসা ছিল, বাঘ শিকার ও হাতী ধরা। তখন শ্ৰীহট্টের জঙ্গলে, এসব -জানোয়ারের অভাব ছিল না। বৎসরে তিনি ৬০৭-টা ব্যাঘ্ৰ বধ করিয়া, গবৰ্ণমেন্টের নিকট একতালিকা পাঠাইতেন। কোম্পানী-বাছাছুর, এজন্য র্তাহাকে প্রচুর অর্থ দিতেন। হাতী ধরিয়া, তিনি কোম্পানীর সেনা-বিভাগে ব্যবহৃত হইবার জন্য পাঠাইতেন । এই সব হাতি, গবর্ণমেন্ট উচ্চারে কিনি লইতেন। এতদ্ভিন্ন ঐহট্টের জঙ্গল কাটাইয়া, তিনি শাল-সেগুণের ব্যবণ" করেন। ১৭৮৭ খ্ৰীষ্টাৰে তিনি প্রচুর বিত্তসম্পন্ন হইয়া বিলাতে চলিয়ান