পাতা:কলিকাতা সেকালের ও একালের.djvu/৮২৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চতুৰ্ব্বিংশ অধ্যায় । । פאף পান্তভাব এখানে নাই বটে, কিন্তু এখানে যে সব প্রাসাদতুল্য ত্রিতল চতুস্তল ও পঞ্চতল বাট আছে, তাহাদের নিকট চৌরঙ্গী এখন প্রাসাদ-সম্পদে পরাজিত। এই হারিসান-রোড় লক্ষ্মীর আবাসস্থান—ইংরাজ-বাণিজ্যের সৌভাগ্য নিকেতন । কেন তাহা বোধ হয় খুলিয়া বলিতে হইবে না। &বড়ার পুল হইতে আরম্ভ করিয়া, শিয়ালদহ পৰ্য্যন্ত ইহার বিস্তৃতি। আর এষ্ট দীর্ঘ বিস্তারমর রাস্তার দুইধারে, অগণিত বাণিজ্য-বিপণী । ধরিতে গেলে হরিসান রোড, মাড়োয়ারীদের সৌভাগ্য ও লক্ষ্মীলাভ-ক্ষেত্র। বড়বাজার কলিকাতার সর্ব শ্রেষ্ঠ বাজার। নানাবিধ পণ্য দ্রব্যপূর্ণ এত বড় বাজার ভারতের অন্য কোন নগরে অাছে কি না সন্দেহ । কলিকাতা মিউনিসিপলিটার ভূতপূৰ্ব্ব চেয়ারম্যান, স্যর হেনরি হারিসনের নামে এই পথটর নামকরণ হইয়াছে। ইহা সম্পূর্ণ আধুনিক। ১৮৮৯ সালে ইহার নিৰ্ম্মাণ ক{য্য আরম্ভ হইয়। ১৮৯২ খ্ৰীষ্টাব্দে শেষ হয় । টিরেট-বাজার ষ্ট্রীট । চিৎপুর-রোডের উপর অবস্থিত, টিরেট বা টেরিটিবাজার হইত্তে এই পথের নামকরণ হইয়াছে। এডওয়ার্ড টিরেট নামক ভিনিস-দেশীয় একজন সয়ন্ত ব্যক্তি, ১৭৮৮ খ্ৰীষ্টাকে এই বাজারের প্রাণপ্রতিষ্ঠা করেন। পূৰ্ব্বে আমরা যে লটারির কথা বলিয়াছি, তাহার একটী বিজ্ঞাপন হইতে জানা যায় —১৭৮৮ খ্ৰীষ্টাব্দে এই টিরেট-বাজার এক "লটারিতে” উঠিয়াছিল। সেই বিজ্ঞাপনটী এই—“প্রথম প্রাইজ, এক সুবৃহৎ ও পাক বাড়ী সমেত বাজার। গৈ এখন মিঃ টিরেটার দখলে আছে ও ইহার ভূমি পরিমাণ নয় বিঘা ও আটকাঠ৷ ” এই বাজারের মধ্যে উত্তম বাধান পাকা রাস্তা, বারান্দাওয়াল বাড়ী ও পাকা দোকান ঘর আছে। এই সম্পত্তির দাম, একলক্ষ ছিয়ানব্বই হাজার টাকা। ১৭৮৮ খৃষ্টাব্দে টিরাট-বাজারের এই দর ছিল। এখন কি চুইয়াছে, একবার অনুমান করিয়া দেখুন। তখন টিরেট-সাহেব এই বাজার হইতে মাসিক ৩৫ • e < টাকা আয় দাড় করাইয়াছিলেন । সৌভাগ্যক্রমে এই বহুমূল্য প্রাইজটা, ওয়েষ্টন সাহেবের অদৃষ্টে উঠে । এই ওয়েষ্টন সাহেবের লক্ষ্মী-ভাগ্য, হলওয়েল প্রদত্ত অর্থ হইতেই সূচিত ইইয়াছিল । এই বাজ)য় এখন বৰ্দ্ধমামাধিপের সম্পত্তি । হরিণবাড়ী লেন । ২২নং টরেটা বাজার ট্রট হইতে ইহা আরম্ভ হইয়াছে। বহুদিন পূৰ্ব্ব । > o. e.