পাতা:কলিকাতা সেকালের ও একালের.djvu/৮৩১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চতুৰ্ব্বিংশ অধ্যায় q為のを Considerations on Indian affairs aimso পুস্তকখানি তৎসাময়িক নানাবিধ জ্ঞাতব্য তথ্যে পরিপূর্ণ। ইনি পলাশী আমলের লোক। ১৭৬৬ খ্ৰী: অকে, কোম্পানীর কৰ্ম্মচারী হইয়াও, গুপ্তবাণিজ্যে লিপ্ত ছিলেন বলিয়া, তখনকার কর্তারা, জোর করিয়া তাহাকে বিলাতে পাঠাইয়া দেন । ১৭৭২ খ্ৰী; অঝে তিনি পূৰ্ব্বোক্ত Considerations নামধের একখানি সুবৃহৎ পুস্তকের প্রচার করেন । এই পুস্তকে তিনি তৎকালীন বেঙ্গল গবর্ণমেণ্টের বিরুদ্ধে অনেক কথাই লিপিবদ্ধ করিয়াছিলেন । এই বোল্টস সাহেবের নাম হইতেই উক্ত গলির নামকরণ হইয়াছে। কটন-স্ট্রট । কটন-স্ট্রীট, তুলাপটীর রাস্তা বলিয়া সৰ্ব্বজন পরিচিত। নামটী “কটন” হইলেও, ইহা কোন ব্যক্তি বিশেষের নামে প্রতিষ্ঠিত নহে। যদিও প্রাচীন কলিকাতার একজন প্রধান সেনাপতির নাম কটন ছিল, বড় লাটপাদরির নামও কটন ছিল, গবর্ণমেণ্টের একজন প্রধান সেক্রেটারির নামও কটন ছিল, তাঙ্গহইলেও তাহদের কাহারও নামে এই পথটর নামকরণ হয় নাই । বহু পুরাকালে, জব চাৰ্লক কর্তৃক কলিকাতা স্থাপনের অনেক পূৰ্ব্বে, এই স্থানে তুলা ও স্বতার দোকান-পাট ছিল এবং নিত্য হাট হইত। এই জন্য ইহা সেই পুরাকালে রুয়েহাট্য” ( রুই—হিন্দুস্থানী শব্দ, অর্থ তুল! ) বলিয়া বিখ্যাত ছিল। তাহার ইংরাজী নাম কটন-স্ট্রীট ও বাঙ্গাল নাম তুলাপটী । ফিয়াস-লেন । এই গলিট সম্পূর্ণ আধুনিক। ফিয়াস-লেন নাম হইবার পূৰ্ব্বে, ইহার পুরাতন নাম আর কিছু ছিল কিনা, তাহা আমরা জানিন । কলিকাতা হাইকোটের পিউনীজজ স্যর জন বড, ফিয়াসের নামে এই পথটার নামকরণ হইয়াছে। স্যর জন ফিয়ার ১৮৬৪ হইতে ১৮৭৬ খৃঃ অব্দ পর্য্যস্ত জঙ্গীয়তী করেন। ইহার পর তিনি সিংহলদ্বীপের চিফ জষ্টিস, নিযুক্ত হইয়। ভারত ত্যাগ করেন। এ দেশীয় শিক্ষিত সম্প্রদায়ের উপর, তাহার যথেষ্ট সহানুভূতি ছিল। তৎকালীন বাঙ্গালীয়া, এই জন্য ইহাকে শ্রদ্ধাভক্তির চক্ষে দেখিতেন । আমহাষ্ট-স্ট্রট । বহুবাজার-স্ট্রীট হইতে আরম্ভ হইয়া, ইহা সরাসর মাণিকতলা ষ্ট্রীটে