পাতা:কলিকাতা সেকালের ও একালের.djvu/৮৩২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


aఇు কলিকাতা সেকালের ও একালের । গিয়া মিশিয়াছে। আমহাষ্ট ষ্ট্রীট যে যে স্থান দিয়া চলিয়। গিয়াছে, তাহান্নদুই পার্শ্বে অবস্থাপন্ন বাঙ্গালীগণের বাস। এই পথের ৮৫নং বাটতে স্বনামধন্য রাজা রামমোহন রায় বাস করিতেন । ১৮১৪ হইতে ১৮৩, খ্ৰীঃ অন্ধ পৰ্য্যন্ত, তিনি ১১৩ নং সার্কিউলার রোডে বাস করিয়াছিলেন। পলাশী-যুদ্ধের পনের বৎসর পরে, রাজা রামমোহন রায় জন্মগ্রহণ করেন। ১৮৩৩ খৃঃ অব্দে, ব্রিষ্টলে এই অতুল প্রতিভাবান, ধৰ্ম্ম-সংস্কারকের দেহা হয়। এখনও ব্রিষ্টলে র্তাহার সমাধিস্তস্ত বৰ্ত্তমান । এই রাস্তার সন্নিকটেই সুপ্রসিদ্ধ লং সাহেবের পুরাতন গির্জা বর্তমান । পাদরী লং-সাহেব, বাঙ্গালীদের উপকারার্থে, অনেক কাজ করিয়া গিয়াছেন। দীনবন্ধুর অমরলেখনী-প্রস্তুত, নীল-দর্পণের ইংরাজী অনুবাদ করিয়া, ইনি হাইকো৯েঅভিযুক্ত হন। তাহাতে ইহার অর্থদণ্ড হয়। মহাভারতের অন্তবাদক স্বনামধন্য vকালীপ্রসন্ন সিংহ মহোদয়, এই জরিমানার টাকা প্রদান করিয়া লং-সাহেবকে কারাদণ্ড হইতে উদ্ধার করেন । এই আমহাষ্ট—ইটের ৩২ নম্বরের বাড়ীর নিকট হইতে, “ক্যারিস-চঃলেন” নামে আর একটি গলি চলিয়া গিয়াছে। ক্যারি, শ্রীরামপুরের স্বনাম প্রসিদ্ধ মিশনরী-সম্প্রদায়ের অন্ততম। ১৭৯৩ খৃঃ অকে, রেভারেও ক্যারি, সৰ্ব্বপ্রথমে এ দেশে আসেন। এরূপ উদ্যম ও অধ্যবসায়পূর্ণ মিশনী, বোধ হয় এদেশে আর দ্বিতীয় কেহ আসেন নাই। ক্যারি সাহেব, ব্যাপ্টিষ্ট-মিশনভুক্ত লোক ছিলেন । এই মিশনের অবস্থা তখন তত উন্নত ছিল না । ক্যারি সাহেবের পরিবারে, উছার স্ত্রী, চারিট পুত্র এক তালিকা। এই সোসাইটীর নিকট হইতে তিনি মোটে পঞ্চাশট টাকা বৃত্তি পাইতেন। কাজেই ইহাতে র্তfহার দিন চলিভ না । এই জন্ত ক্যারি সাহেব, সুন্দরবনের মধ্যে হোসেনাবাদ নামক একস্থানে গমন করেন। এখানে তিনি স্বহস্তে হলচালনা করিয়া কৃষিকাৰ্য্য করিতেন। কিন্তু ইহাতেও তাঁহার বিশেষ কিছু সুবিধা না ঘটায়, মালদহের উড নী সাহেবের অধীনে, তিনি এক চাকুরী গ্রহণ করেন। এই স্থানে, তিনি উডনী সাহেবের ফ্যাক্টারিতে কাজ করিতেন ও অবসর কালে বাইবেল বঙ্গভাষায় অনুবাদ ও প্রচারকার্য্য করিয়া দিনকটাইতেন। ১৭৯৯ খৃঃ অব্দে উইলিয়াম ওয়ার্ড ও স্বনামখ্যাত জন মাশমান সাহেব, এদেশে মিশনরীরূপে আসিয়া, শ্রীরামপুরে এক গির্জা প্রতিষ্ঠা করেন। এই সময়ে ক্যারি সাহেবকে তঁহিীয়া মালদহ হইতে আনাইয়া লয়েন ।