পাতা:কলিকাতা সেকালের ও একালের.djvu/৮৪১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চতুৰ্ব্বিংশ অধ্যায়। bళeరి একটা বাগান ছিল। পেরিং-বাগান যখন নিৰ্ম্মিত হয়, তখন ক্লাইভ নদাজে রাইটারি করিতেন, আর ওয়ারেণ হেষ্টিংস সবে মাত্র কাশিমবাজারের কুঠীতে কোম্পানীর চাকরীতে প্রবেশ করিয়াছেন। নবাৰ সেরাজউদৌলা কর্তৃক কলিকাতা আক্রমণের পূৰ্ব্বে, এই Perrin’s Garden ইংরাজদের সখের—ন্দ্রমণের স্থান ছিল । ১৭৫২ খ্ৰীঃ অব্দে হলওয়েল সাহেব, কলিকাতায় যে বিবরণ লিখিয়াছিলেন, তাহাতে বাগবাজারের নামোল্লেথ ছিল। ১৭৪৯ খৃঃ অবো এই বাগবাজার অঞ্চলট কোম্পানী বাহাদুর প্রজাবিলি করেন। কিন্তু এই প্রজা যে কে, তাহার নাম পাওয়া যায় না । ১৭৮৪ খৃঃ অব্দের উডের ম্যাপেও বাগবাজারের নামোল্লেথ ও স্থাননির্দেশ দেখিতে পাওয়া যায় । ১৭৫৫ খৃঃ অব্দে কোম্পানী বাহাদুর গঙ্গার উপর চৌকী দিবার জন্য বাগবাজার সান্নিধ্যে ৩৩৮২ টাকা ব্যয়ে এক রক্ষীমঞ্চ প্রস্তুত করেন । এই স্থানে স্বল্প সংখ্যক গোরা ও কয়েকজন দেশীয় সেনা, এনসাইন পিকার্ডের অধীনে, নবাব কর্তৃক এই স্থান আক্রমণ সময়ে (১৭৫৬ খ্ৰীঃ অব্দ) মহা সাহসের সহিত আত্মরক্ষণ করিয়াছিল। বৰ্ত্তমান বাগবাজার ষ্ট্রীট, পুরাকালে “গন্‌পাউডার-ফ্যাক্টরী-রোড” বলিয়া পরিচিত ছিল। যেখানে বাগবাজার ট্রীট আজকাল চিৎপুর রোডে মিশিয়াছে, পূর্বে তাঙ্গ ছিল না। পেরিংস-গার্ডেনের পূর্ব সীমা পর্য্যন্ত সাধারণ রাস্তা ছিল, উহা বৰ্ত্তমান হরলাল মিত্রের ষ্ট্রটু পর্য্যস্ত বিস্তৃত ছিল, তাহার পর বাগানের দক্ষিণদিক দিয়া, একটা মুড়িপথ-মাত্র চিৎপুর রোডে গিয়া মিশিয়াছিল। হলওয়েল সাহেব ১৭৫২ খ, অব্দের ১১ ডিসেম্বর, কোম্পানীর নিকট হইতে ইহা প্রকাশ নীলামে ক্রয় করেন। তৎপরে এই স্থানে বারুদখানা তৈয়ারি হয়। শু্যামবাজার ষ্ট্রীট। স্যামবাজার ষ্ট্রীট নামকরণ কেন হইল, তৎসম্বন্ধে একটু মত বিভিন্নতা দেখা যায়। অনেকে বলেন—পলাশী-আমলের সুপ্রসিদ্ধ শোভারাম বসাকের, শু্যামরায় বিগ্রহের নাম হইতে “শ্রামবাজার” হইয়াছে । হলওয়েলের তালিকা মধ্যে, এই স্থান “চালর্স-বাজার” বলিয়া উল্লিখিত আছে। প্রত্নতত্ত্ববিৎ গেীরদাস বাবু, খামবাজার, শুীমপুকুর ইত্যাদি নামকরণের, কারণ এই খামরায় ঠাকুর ইহাই সিদ্ধান্ত করিয়া গিয়াছেন। অশ্মির "পে খামবাজায় ও খামপুকুর স্পষ্টভাবে চিত্রিত। কিন্তু নব্যভারতের