পাতা:কলিকাতা সেকালের ও একালের.djvu/৮৫৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চতুৰ্ব্বিংশ অধ্যায়। b-( একজন বিত্তশালী লোক ছিলেন। বৈঠকখানা বাজারের নিকট তিনি একটা প্রকাণ্ড পুষ্করিণী খনন করাইয়া দেন। কলিকাতা মিউনিসিপ্যালিটী, এই পুকুরটা বহুকাল বুজাইয়া দিয়াছেন। পূৰ্ব্বে এখানে হুজুরী-মলের পুকুর ছিল বলিয়া, ইহা হুজুরী-মলের ট্যাঙ্ক লেন নামে বিখ্যাত । কালীঘাটের-বাজার আজকাল যে স্থানে, সেই স্থানাধিকৃত সমস্ত জমী, জীমল বাবু, কোম্পানির নিকট কোনও কার্য্যের জন্ত পুরস্কার স্বরূপ পাইয়াছিলেন। তাহার ইচ্ছা ছিল, সেই জমীর উপর দেবালয় ও গঙ্গার উীরে এক ঘাট করিয়া দেন। কিন্তু দানপ্রাপ্ত জমীতে, এরূপ ভাবে দেবালয় ও সদাব্রত প্রতিষ্ঠিত করিতে নাই, এরূপ একটা শাস্ত্রীয়-বিধান পাওয়ায়, তিনি নিজ তহবিল হইতে জমী কিনিয়া, গঙ্গাতীরে একটা ঘাট প্রস্তুত করিয়া দেন | কাশীঘোষের লেন । কাশীঘোষ, রামদেব ঘোষের পুত্র। রামদেব সেকালের নদীয়ার রাজাদের দেওয়ান ছিলেন। রামদেবের পুত্র কাশীঘোষ, ফেয়ারলি ফরওসান কোম্পানীর ফারমের সহকারী বেনিয়ান ছিলেন। সেকালে যাহারা সওদাগরী অফিসের মুচ্ছদী বা বেনিয়ান-গিরি করিয়া গিয়াছেন, তাহীদের মধ্যে অনেকেই, বিত্তসম্পন্ন হইয়াছিলেন। কাশীঘোষ, মৃত্যুকালে অনেক টাকার সম্পত্তি রাখিয়া যান। খেলাত-ঘোষের গলি । পাথুরিয়া-ঘাটার ঘোষ বংশ, চিরদিনই ক্রিয়াবান, ও বিখ্যাত জমীদার। খেলাত ঘোষ মহাশয়ের প্রাসাদ-তুল্য আবাসভবন এখনও কলিকাতা পাথুরিয়া-ঘাটায় বর্তমান। খেলাত-ঘোষ মহাশয়, ক্রিয় কলাপাদির জন্য সেকালের সমাজে একজন বিখ্যাত ব্যক্তি ছিলেন। স্বগীয় রমানাথ ঘোষ, তাহার বংশধর । রমানাথ বাবুও সাধারণ হিতকর কার্ষ্যে ও সভাসমিতিতে পূর্ণোৎসাহে যোগদান করিতেন । খেলাত-ঘোষ মহাশয়, দেওয়ান রামলোচন ঘোষের পৌত্র। রামলোচন ঘোষ, লেডী ওয়ারেণ হেষ্টিংসের দেওস্থান ছিলেন । খেলাত-চন্দ্রের খুল্লতাত, আনন্দনারায়ণ ঘোষ পুরাকালে ধর্মতলায় একটা বাজারের অধিকারী ছিলেন। ইহঁর সামানুসারে এই ৰাজার সেকালে “আনন্দ-বাজার” বলিয়া পরিচিত ছিল।