পাতা:কলিকাতা সেকালের ও একালের.djvu/৮৮৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


b'Bob কলিকাতা সেকালের ও একালের । নাম হইতেই এই গলিটার নামকরণ হইয়াছে। চূড়ামণি দত্ত, শোভাবাজারের মহারাজা নবকৃষ্ণের সমসাময়িক ছিলেন। চূড়ামণি ও নবককে মধ্যে, স্ব স্ব সমাজের দলপতিত্ব লইয়া, অনেক মনোবাদ ঘটিয়াছিল। চূড়ামণি দত্ত সম্বন্ধে কয়েকটা গল্প আমরা ইতিপূৰ্ব্বে কালীঘাট-প্রদান বলিয়াছি । এক সময়ে কোন সামাজিক পাপের জন্ত এবং শত্রুদের চক্রান্তে, চূড়ামণির পুত্র কালীপ্রসাদ, সমাজচ্যুত হয়েন। রাজারদলের লোকে প্রবল হইয়া, তাহার পিতৃশ্ৰাদ্ধ পণ্ড করিয়া দিবার চেষ্টা করেন। সেকালে এইরূপ সামাজিক দলাদলির বড়ই প্রাবল্য ছিল—আর এই সব ব্যাপার লইয়া, উভয়পক্ষের মধ্যে যথেষ্ট মনোবাদ জন্মিত। কিন্তু এত চেষ্টা করিয়াও রাজা নবকৃষ্ণের দল—চুড়ামণির দলকে পরাস্ত করিতে পারেন নাই। কালীপ্রসাদ দত্ত বিপদে পড়িয়া, বড়িষার সাবর্ণ-জমীদার সন্তোষরায় মহাশয়ের শরণাপন্ন হন । সন্তোষরায় একজন পরোপকারী দোওপ্রতাপ জমীদার ছিলেন। তিনি কালীঘাট, ভবানীপুর, বেহালা, বড়িয়া, শরশুনা প্রভৃতি স্থানের কুলীন ব্রাহ্মণ ও কায়স্থগণকে সমভিব্যাহারে লইয়া গিয়া, কালীপ্রসাদের পিতৃশ্ৰাদ্ধ পণ্ড হইতে দেন নাই। কৃতজ্ঞতা স্বরূপ, কালীপ্রসাদ তাহার সমভিব্যাহারী ব্রাহ্মণ ও কায়স্থগণের পাথেয় স্বরূপ কয়েক সহস্র টাকা দেন। সস্তোষ রায়—এই টাকা কাহাকেও লইতে মা দিয়া, কালীঘাটের বর্তমান কালীমন্দির নির্শ্বাণার্থে তাহ প্রদান कटंब्रन, ऐशंई सन७धंदांन । শম্ভুনাথ পণ্ডিতের লেন । হাইকোর্টের ভূতপূৰ্ব্ব জজ, শুভুনাৰ পণ্ডিতের নাম, সৰ্ব্বসাধারণে পরিচিত। সৰ্ব্বপ্রথমে রমাপ্রসাদ রায় হাইকোর্টের বাঙ্গালী-জজ হন। কিন্তু তাহার অকালমৃত্যু ঘটায়—শভূনাথ পণ্ডিত মহাশয়, জঙ্গীয়তী পদ লাভ করেন। হাইকোর্টের বিচারপৃহে এখনও শম্ভুনাথের একখানি প্রমাণ তৈলচিত্র বর্তমান। শম্ভুনাথের পিতার নাম শিবনারায়ণ পণ্ডিত। ইহার কাশ্বিরীজাহ্মণ। শৰুনাখ, ভবানীপুরে জাসিয়া বসবাস করেন। সেকালের মুগ্ৰীমকোর্টের তিনি একজন নামজাদ উকীর্ণ ছিলেন। বহুদিন ধরিয়া তিনি উকীল-সরকারের কাজও করিয়াছিলেন। ছোটআদালতের তদানীন্তন জজ, রাজা রামমোহন রায়ের পুত্র রমাপ্রসাদ স্বায়কে গবৰ্ণমেন্ট হাইকোর্টের প্রথম বাঙ্গালী-জঙ্গরূপে নিৰ্ব্বাচিত করেন।