পাতা:কলিকাতা সেকালের ও একালের.djvu/৯২৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


b空e কলিকাতা সেকালের ও একালের । বাটতে পরিণত করিবার প্রস্তাব করা হয়। কিন্তু বিলাতের কার এ প্রস্তাবে অমত প্রকাশ করায়, তখন এ সঙ্কল্প পরিত্যক্ত হয় । ইহার পর ডচ এডমিরাল ষ্টাভোরিনসের উক্তি হইতে জানা যায়, ১৭৭০ খৃঃ অন্ধে এই বেলভেডিয়ারে গবর্ণরের বাগান-বাটী প্রতিষ্ঠিত হইয়াছিল। ইংরাজ-গবর্ণর— ডচ-গবর্ণর ও এডমিরালগণকে একবার নিমন্ত্রণ করেন। ষ্ট্যাভোৱিনস এই ক্ষেত্রে উপস্থিত ছিলেন। তিনি এই নিমন্ত্রণ-ব্যাপার সম্বন্ধে যাহা কিছু লিখিয়া গিয়াছেন, তাহা হইতে প্রমাণ হয়, ১৭৭০ খৃঃ অবো, বেলভেডিয়ারে, ইংরাজ-গবর্ণরের আবাস-বাটী বৰ্ত্তমান ছিল। পাঁচ বৎসর পরে গবর্ণর-জেনারেল হইয়া, ওয়ারেণ-হেষ্টিংস, আলিপুরে বাগানবাড়ী নির্ধা করেন। র্তাহার লেখা হইতে প্রমাণ হয়, তখন তিনি এই বেলভেডিয়ারে (অবশ্য বর্তমান প্রাসাদে নহে, কারণ এ প্রাসাদ তখনও নিৰ্ম্মিত হয় নাই) কোন একটা বাড়ীতে বাস করিতেন। এই বাড়ীতেই তিনি, মহারাজ নন্দকুমারের বিরুদ্ধে আনীত, চক্রাস্ত-মোকদ্দমার প্রধান নাত্মক কমলউদ্দিন সেখের সহিত দেখা সাক্ষাৎ করিতেন । এই কমলউদ্দিন, নন্দকুমারের নামে আনীত “জাল-মোকদ্দমার” একজন প্রধান সাক্ষী ছিল । ১৭৭৫ খ্ৰীঃ অব্দে ওয়ারেণ-হেষ্টিংস, তাহার প্ৰিয়বন্ধু স্যর ইলাইজ। ইম্পিকে, তাহার বাগান-বাটতে কিয়দিন বাস করিবার জন্য অনুরোধ করেন। এই বাগান-বাটী আলিপুর বেলভেডিয়ারের কোনও বাট, কি হেষ্টিংসের ঋষড়ার বাগান-বাটী, কিছুই স্থির করা যায় না । ইহার পরবর্তীকালে মিসেস ফে'র * একখানি পত্র হইতে প্রমাণ হয়, তিনি হেষ্টিংসের এই বেলভেডিয়ার বাটতেই নিমন্ত্রিত হইয়াছিলেন। রেভারেও ফারমিঞ্জার বলেন,—“নূতন বাড়ী প্রস্তুত করা এবং পরে সেই বাটী বিক্রয় করা, হেষ্টিংসের একটা বাতিকের মধ্যে দাড়াইয়াছিল। কলিকাতা ও আলিপুরে তাহার একাধিক বাট ছিল। এই জন্য কোন বাটতে তিনি বাস করিতেন, তাহ নিঃসন্দেহে স্থির করা বড়ই দুরূহ।” ১৭৮০ খ্ৰীঃ অব্দের ফেব্রুয়ারি মাসে–হেষ্টিংস এই বেলভেডিয়ার

  • এই মিসেস ফেরের, পুরাকালের কলিকাতার একজন বারিষ্টার-পত্নী। ইনি স্থলপথে সরাসর বিলাত হইতে কলিকাতায় আসিয়াছিলেন। কালিকটে অবস্থানকালে, ইনি হায়দর জালির হস্তে বন্দী হন। মিসেস ফের লিখিত অনেক চিঠি-পত্র হইতে, সেকালের কলিকাতা সম্বন্ধে অনেক কথা জানিতে পারা যায়। গবর্ণর পত্নী লেডী হেষ্টিংসের সহিত র্তাহার খুব

पक्रूर झ्नि ।