পাতা:কলিকাতা সেকালের ও একালের.djvu/৯৮৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


৯৪২ কলিকাতা সেকালের ও একালের। পাইকপাড়া রাজবংশ (দেওয়ান গঙ্গাগোবিন্দ সিংহ)। o এই প্রাচীন সন্ধান্ত কায়স্থ বংশের পূর্বের বাসস্থান মুর্শিদাবাদ জিলা কান্দিগ্রামে ছিল। ইছার প্রতিষ্ঠাতার নাম হরকৃষ্ণ সিংহ। তিনি মুসলমান রাজগণের স্বামলে প্রচুর ধনসংগ্ৰহ করিয়াছিলেন। ँशश्च coौश्व বিচারীর দুই পুত্ৰ—রাধাগোবিন্দ ও গঙ্গাগোবিন । রাধাগোবিন, নৰাৰ আলিবর্দি খ ও নবাব সিরাজদ্দৌলার অধীনে খাজনা-সংক্রান্ত পদস্থ কৰ্ম্মচারী ছিলেন। ভবিষ্যৎকালে খাজনা সংগ্রহের ভার ইংরাজের হস্তুে যাওয়াতে তিনি এসম্বন্ধে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র তাহাদিগকে বুঝাইয়। দেওয়ায় পুরস্কার স্বরূপ একটা “সইয়ারমহল” অর্থাৎ হুগলীতে বাণিজ্যের শুষ্ক আদায়ের স্বত্ব পাইয়াছিলেন । ১৭৯০ অব্দে এই “সইয়ারমহল" ফিরাইয়া লওয়া হইয়াছিল বটে, কিন্তু তাহার বদলে গবৰ্ণমেন্ট ই হাদিগকে হুগলীতে বাৎসরিক ৩৬৯৮ টাকা আয়ের সম্পত্তি প্রদান করিয়াছিলেন । এই বংশের বংশধরগণ আজিও সেই সম্পত্তি ভোগ করিয়া আসিতেছেন। দেওয়ান গঙ্গাগোবিন্দ সিংহ তৎকালের বঙ্গদেশের রাজনৈতিক ব্যাপারে দক্ষত লাভ করেন। এজন্য তিনি গবর্ণমেণ্টে সন্মানিত হন। র্তাহার দানশীলতা সুবিখ্যাত। মাতৃশ্ৰাদ্ধে তিনি বহু লক্ষ টাকা ব্যয় করিয়াছিলেন। ওয়ারেন হেষ্টিংসের আমলে ইষ্ট ইণ্ডিয়া কোম্পানী তাহাকে “দেওয়ান” পদে নিযুক্ত কয়েন এবং মুবাসংক্রান্ত বন্দোবস্তের সম্পূর্ণ ভার তাহার হস্তে প্রদান করেন । দেওয়ান গঙ্গাগোবিন মৃত্যুকালে পুত্র প্রাণকৃষ্ণের ভার জ্যেষ্ঠ রাধাগোবিদের হন্তে করেন । "গঙ্গাগোবিন্দ সিংহের আমলেই পাইকপাড়া রাজবংশ যথেষ্ট ধনশালী হইয়াছিলেন। মহারাজ নবকৃষ্ণ, মাতৃশ্ৰাদ্ধে প্রচুর অর্থব্যয় করিয়া যেরূপ শসঞ্চয় করেন; গঙ্গাগোবিদের মনেও সেইরূপ একটা যশসঞ্চয়ের অভি লাষ হয়। মহম্মদ রেজা খী যখন বাঙ্গালার রাজস্ব বিভাগের সর্বময় কৰ্ত্ত, গঙ্গাগোবিন্দ সেই সময়ে তাহার অধীনে প্রধান কৰ্ম্মচারী বা কামুনগে পদে নিযুক্ত ছিলেন। গবৰ্ণৰ ছেটিংস সাহেব তাহাকে যথেষ্ট ভালবাসিতেন, এজন্য গঙ্গাগোবিন্দ এই কাজেষ্ক্রমে ক্রমে যথেষ্ট অর্থ সঞ্চয় করেন। মহম্মদ রেজা খাঁ পদচ্যুত হইলে, গঙ্গাগোবিদের চাকরী যায়। এই সময়ে কেন্সিলের সদস্যেরা বিরোধী হওয়ায় ও নন্দকুমার হেষ্টিংসের