পাতা:কল্পদ্রুম তৃতীয় খণ্ড.djvu/৬০৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


প্রতিবাদের প্রতিবাদ । (t Sማ করুন, যিনি বীরসেনের প্রাচুর্ভৰ কালে কি তৎপরে হরিবংশ পৰ্ব্ব রচনা করিলেন, তিনি কি কখন রামচরিত রচয়িতার পূর্ববর্তী হইতে পারেন ? ” আমরাও তাই বলিতেছি—পাঠক ! এখন বিবেচনা করুন, যিনি ত্রেতাযুগে রামায়ণ লিখিলেন, তিনি কি কলিতে জীবিত থাকিতে পারেন ? আমরা দুঃখিত হইলাম, যাদব বাবু বিদ্যানুরাগী হইয়াও পুরাণের তথ্য অমুসন্ধান করিয়া লন নাই । তিনি হরিবংশ সম্বন্ধে যে আপত্তি তুলিয়াছেন, সেটা ঠিক কথা ধরিয়াছেন ; কিঞ্চিৎ সমাহিত চিত্তে বিচার করিলে উক্ত পুস্তকের নবীনত্ব প্রমাণ করিতে পারিতেন । আমাদের এই অল্প স্থানে এককালে সকল কাজ হইয়া উঠে না । আমরা দেখিতে পাই, যেখানে মুনি ঋষির সভা হইয়াছে, সেই খানেই প্রসিদ্ধনাম ঋষিগণ উপস্থিত আছেন । বিশ্বাবিত্র, অfত্র, প্রভৃতি ঋষিগণ সকল সময়ে সকল স্থানেই আছেন, মহাভারতেও তাহাদিগকে দেখা যায়, রামায়ণেও উiহাদিগকে দেখা যায়,—আবার হিন্দুজাতির পৈতৃক ধন,— প্রাচীন ঋগ্বেদ, সেখানেও তাহারা আছেন। অবিস্ফুট জটিল ঋগ্বেদের ভাষা, আর পৌরাণিক ভাষা–কত বিভিন্ন ! বৈদিক ভাষা সত্যযুগের আর্য্যদিগের আদিম ভাষা ; সে যেন গুটিকাস্থিত অঙ্গ প্রতাঙ্গ বিচীন কৃমিবৎ । পৌরাণিক ভাষা আৰ্য্যদিগের অপেক্ষাকৃত মার্জিত ও উন্নত অবস্থাপন্ন। এ যেন গুটিকানির্গত সুদৃশ্য প্রজাপতি,—আপনার পরিচ্ছদগরিমা বিস্তার করিতেছে । এ ত এক জন্মাস্তরের কথা,-—এক মম্বন্তরে এ পরিবর্তন ঘটিয়াছে। তবে দেখুন, যে ঋষি ঋগ্বেদে আছেন, তিনি কি কখন মহাভারতে বা রামায়ণে থাকিতে পারেন ? আমরা দেখিতে পাই, বিখ্যাত ঋষিদিগের নাম অনেক স্থানে একত্র সন্নিবেশিত করিয়া দেওয়া হইয়াছে, কিন্তু তাহার কোন সময়ে কোথায় বর্তমান ছিলেন, তৎপ্রতি কিছুই অনুধাবন করিয়া দেখা হয় নাই । , ইহাতে স্পষ্ট বুঝিতে পারা যায়, ঐ সমস্ত ঋষি কখন একত্র মিলিত হন নাই, সভা বা যাগাদির গৌরববৃদ্ধির নিমিত্ত র্তাহীদের নামমাত্র উল্লিখিত হইয়াছে। এখন পুরাণৰিশেষে ব্যাস ও বান্ধীকির নাম মাত্র দেখিয়া আমরা ভুলিব না । বাল্মীকি কোন সময়ে জীবিত, ছিলেন, কোন বিশুদ্ধ প্রমাণ দ্বারা তাহ স্থির করিতে হইয়াছে। রাম মিথিলা হইতে যখন কোশলরাজ্যে প্রত্যাগমন করেন, পরশুরাম,