পাতা:কাফ্রি দাসের বৃত্তান্ত - লী রিচমণ্ড.pdf/২৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।

২০

এক জাহাজে আরোহণ করিয়া তোমার দেশে যদি যান, এবং তদ্দেশস্থ লোকদের নিকটে, বিশেষতঃ তোমার প্রিয় পিতামাতা এ পর্য্যন্ত জীবৎ থাকিলে তাহাদেরও নিকটে পরিত্রাণের মঙ্গল সমাচার প্রচার করিবেন।

 এই কথাতে কাফ্রী ভূমিহইতে লম্ফ দিয়া কহিল, “আঃ আমার প্রিয় পিতামাতা। হে আমার প্রিয় দয়াবান ত্রাতা, তুমি পাপিদের জন্যে কি২ করিয়াছ ইহা যদ্যপি তাঁহাদিগকে জানাইয়া তাঁহাদের প্রাণ রক্ষা কর—।”

 ইহা বলিয়া সে খেদ প্রযুক্ত আর কথা কহিতে না পারিয়া মৌনী হইয়া রহিল।

 তাহাতে আমি কহিলাম, হে বন্ধু, আমি এইক্ষণে তোমার ও তোমার পিতামাতার ত্রাণের জণ্যে প্রার্থনা করি।

 “এমত করিলে মহাশয়, অধিক অনুগ্রহ প্রকাশ করিবেন। আপনি এ দেশীয় ও আর২ দেশীয় দরিদ্র কাফ্রিদের নিমিত্তে প্রার্থনা করুন।”

 সেই স্থান নূতন ও ভক্তিজনক প্রার্থনালয় ছিল। সমুদ্রতীরস্থ বালুকা আমাদিগের মেজ্যাস্বরূপ ও আকাশ মন্দিরের ছাতস্বরূপ ও পর্ব্বত ও উপপর্ব্বত ও সাগরের তরঙ্গ সকল তাহার প্রাচীর স্বরূপ। সেই স্থানে প্রার্থনা নিত্য করা যাইত না, তথাপি একবার প্রার্থনা হওন হেতু তাহা আমাকর্তৃক সদাকাল পবিত্ররূপে মান্য হইবে। ঈশ্বর সে স্থানে বর্ত্তমান ছিলেন। আমি প্রার্থনা করিলাম। কাফ্রির অন্তঃকরণ চিন্তাতে পরিপূর্ণ হওয়াতে সে রোদন করিতে লাগিল। আমিও তাহার ন্যায় চিন্তিত হইয়া ক্রন্দন করিতে লাগিলাম। ঐ অশ্রুপাত অকপট খ্রীষ্টীয় প্রেমপ্রযুক্ত কি না, ইহা মহাদিবসে প্রকাশ পাইবে।

 আমার বাটীতে ফিরিয়া যাওন কাল উপস্থিত হইলে আমি তাহার স্কন্ধে ভার দিয়া আড়ূরির উপরে গে