পাতা:কাব্যগ্রন্থ (চতুর্থ খণ্ড).pdf/১৪৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পসারিণী ওগো পসারিণী, দেখি আয় কি রয়েছে তব পসরায় । এত ভার মরিমরি কেমনে রয়েছ ধরি* কোমল করুণ ক্লান্তকায় । কোথা কোন রাজপুরে যাবে আরো কতদূরে কিসের দুরূহ তুরাশায় । সম্মুখে দেখ ত চাহি, পথের যে সীমা নাহি, তপ্তবালু অগ্নিবাণ হানে। পসারিণী কথা রাখো, দূর পথে যেয়োনাকো, ক্ষণেক দাড়াও এইখানে । হেথা দেখ শাখা-ঢাকা বাধা বটতল ; কুলে কুলে ভরা দীঘি, কাকচক্ষু জল । ঢালু পাড়ি চারিপাশে কচিকচি কাচা ঘাসে ঘনশ্যাম চিকণ-কোমল ; পাষাণের ঘাটখানি, কেহ নাই জনপ্রাণী, আম্রবন নিবিড় শীতল । থাক তব বিকি-কিনি, ওগো শ্রান্ত পসারিণী এইখানে বিছাও অঞ্চল । >>b"