পাতা:কাব্যগ্রন্থ (তৃতীয় খণ্ড).pdf/১২৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সোনার তরী নাহি জানি কত কি যে উঠিল জালে কোনোটা হাসির মত কিরণ ঢালে, কোনোটা বা টলটল কঠিন নয়ন জল, কোনোটা সরমছল বধুর গালে, সেদিন সাগরতীরে প্রভাতকালে । বেলা বেড়ে ওঠে, রবি ছাড়ি পূরবে গগনের মাঝখানে ওঠে গরবে । ক্ষুধাতৃষ্ণ সব ভুলি’ জাল ফেলে’ টেনে তুলি, উঠিল গোধূলিধূলি ধূসর নভে । গাভীগণ গৃহে ধায় হরষরবে । ল’য়ে দিবসের ভার ফিরিমু ঘরে, তখন উঠিছে চাদ আকাশপরে । গ্রামপথে নাহি লোক, পড়ে আছে ছায়ালোক, মুদে আসে ছুটি চোখ স্বপনভরে ; ডাকিছে বিরহী পার্থী কাতরস্বরে । > > A