পাতা:কাব্যগ্রন্থ (তৃতীয় খণ্ড).pdf/২০২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সোনার তরী তোমারে কি আমি কহিব অন্ত্য, চিরদিন থাক সুখে । ভাবিয়া না পাই কি দিব তোমারে, করি পরিতোষ কোন উপহারে, যাহা কিছু আছে রাজভাণ্ডারে সব দিতে পারি অানি’ — প্রেমোচ্ছসিত আনন্দজলে ভরি দু’নয়ন কবি র্তারে বলে,— কণ্ঠ হইতে দেহ মোর গলে ওই ফুলমালাখানি ।– মালা বাধি’ কেশে কবি যায় পথে, কেহ শিবিকায়, কেহ ধায় রথে, নানাদিকে লোক যায় নানামতে কাজের অন্বেষণে ; কবি নিজ মনে ফিরিছে লুব্ধ যেন সে তাহার নয়ন মুগ্ধ কল্পধেনুর অমৃত দুগ্ধ দোহন করিছে মনে । কবির রমণী বাধি’ কেশপাশ, সন্ধ্যার মত পরি’ রাঙা বাস, >b"と