পাতা:কাব্যগ্রন্থ (তৃতীয় খণ্ড).pdf/২১৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সোনার তরী ছাড়ি লক্ষ বরষের স্নিগ্ধ ক্রোড়খানি ? চতুর্দিক হ’তে মোরে লবে না কি টানি এই সব তরু লতা গিরি নদী বন, এই চিরদিবসের সুনীল গগন, এ জীবন-পরিপূর্ণ উদার সমীর, জাগরণপূর্ণ আলো, সমস্ত প্রাণীর অন্তরে অন্তরে গাথ জীবন-সমাজ ? ফিরিব তোমারে ঘিরি’, করিব বিরাজ তোমার আত্মীয়মাঝে ; কীট পশু পার্থী তরু গুল্ম লতারাপে বারম্বার ডাকি? আমারে লইবে তব প্রাণতপ্ত বুকে ; যুগে যুগে জন্মে জন্মে স্তন দিয়ে মুখে মিটাইবে জীবনের শত লক্ষ ক্ষুধা, শত লক্ষ আনন্দের স্তন্ত্যরসস্থধা নিঃশেষে নিবিড় স্নেহে করাইয়া পান । তার পরে ধরিত্রীর যুবক সন্তান বাহিরিব জগতের মহাদেশমাঝে অতি দূর দূরান্তরে জ্যোতিষ্কসমাজে স্বতুগম পথে —এখনো মিটেনি আশা, এখনো তোমার স্তন-অমৃত-পিপাসা মুখেতে রয়েছে লাগি, তোমার আনন এখনো জাগায় চোখে সুন্দর স্বপন, ミ.o ミ