পাতা:কাব্যগ্রন্থ (তৃতীয় খণ্ড).pdf/২৬০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চিত্রা নাহি ভৎসে অদৃষ্টেরে, নাহি নিন্দে দেবতারে স্মরি, মানবেরে নাহি দেয় দোষ, নাহি জানে অভিমান, শুধু দুটি অন্ন খুটি কোনোমতে কষ্টক্লিষ্ট প্রাণ রেখে দেয় বাচাইয়া ! সে অন্ন যখন কেহ কাড়ে, সে প্রাণে আঘাত দেয় গৰ্ব্বান্ধ নিষ্ঠুর অত্যাচারে, নাহি জানে কার দ্বারে দাড়াইবে বিচারের আশে, দরিদ্রের ভগবানে বারেক ডাকিয়া দীর্ঘশ্বাসে মরে সে নীরবে ! এই সব মূঢ় স্নান মূক মুখে দিতে হবে ভাষা ; এই সব শ্রান্ত শুষ্ক ভগ্ন বুকে ধ্বনিয়া তুলিতে হবে আশা ; ডাকিয়া বলিতে হবে— “মুহূৰ্ত্ত তুলিয়া শির একত্র দাড়াও দেখি সবে ; যার ভয়ে তুমি ভীত, সে অন্যায় ভীরু তোমা চেয়ে, যখনি জাগিবে তুমি তখনি সে পলাইবে ধেয়ে ; যখনি দাড়াবে তুমি সম্মুখে তাহার—তখনি সে পথ-কুকুরের মত সঙ্কোচে সত্রাসে যাবে মিশে ; দেবতা বিমুখ তারে, কেহ নাহি সহায় তাহার, মুখে করে আস্ফালন, জানে সে হীনতা আপনার মনে মনে ৷”— কবি, তবে উঠে এস,—যদি থাকে প্রাণ তবে তাই লহ সাথে,—তবে তাই কর আজি দান ! বড় দুঃখ, বড় ব্যথা—সম্মুখেতে কষ্টের সংসার বড়ই দরিদ্র, শূন্ত, বড় ক্ষুদ্র, বদ্ধ অন্ধকার – ૨88