পাতা:কাব্যগ্রন্থ (তৃতীয় খণ্ড).pdf/২৬৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


এবার ফিরাও মোরে চলেছে মানবযাত্রী যুগ হ’তে যুগান্তর পানে ঝড়ঝঞ্জা বজপাতে, জ্বালায়ে ধরিয়া সাবধানে অন্তর-প্রদীপখানি । শুধু জানি—যে শুনেছে কানে তাহার আহবানগীত–ছুটেছে সে নির্ভীক পরাণে সঙ্কট-আবর্তমাঝে, দিয়েছে সে বিশ্ব বিসর্জন, নিৰ্য্যাতন লয়েছে সে বক্ষ পাতি ; মৃত্যুর গর্জন শুনেছে সে সঙ্গীতের মত । দহিয়াছে অগ্নি তা’রে, বিদ্ধ করিয়াছে শূল, ছিন্ন তা’রে করেছে কুঠারে, সর্বব প্রিয়বস্তু তা’র অকাতরে করিয়া ইন্ধন চিরজন্ম তারি লাগি জেলেছে সে হোম-হুতাশন ;– হৃৎপিণ্ড করিয়া ছিন্ন রক্তপদ্ম-অৰ্ঘ্য-উপহারে ভক্তিভরে জন্মশোধ শেষ পূজা পূজিয়াছে তারে মরণে কৃতাৰ্থ করি প্রাণ। শুনিয়াছি, তারি লাগি রাজপুত্র পরিয়াছে ছিন্ন কন্থা, বিষয়ে বিরাগী পথের ভিক্ষুক । মহাপ্রাণ সহিয়াছে পলে পলে ংসারের ক্ষুদ্র উৎপীড়ন, বিধিয়াছে পদতলে প্রত্যহের কুশাঙ্কুর, করিয়াছে তারে অবিশ্বাস মূঢ় বিজ্ঞজনে, প্রিয়জন করিয়াছে পরিহাস অতিপরিচিত অবজ্ঞায়, গেছে সে করিয়া ক্ষমা নীরবে করুণনেত্ৰে—অন্তরে বহিয়া নিরুপমা সৌন্দৰ্য্যপ্রতিমা । তারি পদে, মানী সঁপিয়াছে মান, ধনী সঁপিয়াছে ধন, বীর সপিয়াছে আত্মপ্রাণ, 8어