পাতা:কাব্যগ্রন্থ (তৃতীয় খণ্ড).pdf/৩০৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


দুই বিঘা জমি সে কি মনে হবে একদিন যবে ছিলে দরিদ্র-মাত, আঁচল ভরিয়া রাখিতে ধরিয়া ফলফুল শাকপাত । আজ কোন রীতে কারে ভুলাইতে ধরেছ বিলাস-বেশ পাচরঙা পাতা অঞ্চলে গাথা, পুষ্পে খচিত কেশ। আমি তোর লাগি ফিরেছি বিবাগী গৃহহারা সুখহীন, তুই হেথা বসি’ ওরে রাক্ষসী হাসিয়া কাটাস দিন ? ধনীর আদরে গরব না ধরে, এতই হয়েছ ভিন্ন কোনোখানে লেশ নাহি অবশেষ সে দিনের কোনো চিহ্ন ! কল্যাণময়ী ছিলে তুমি অয়ি, ক্ষুধাহরা স্থধারাশি ; যত হাস আজ, যত কর সাজ, ছিলে দেবী হ’লে দাসী । বিদীর্ণ হিয়া ফিরিয়া ফিরিয়া চারিদিকে চেয়ে দেখি ; প্রাচীরের কাছে এখনো যে আছে, সেই আম গাছ এ কি ? বসি’ তা’র তলে নয়নের জলে শান্ত হইল ব্যথা, একে একে মনে উদিল স্মরণে বালককালের কথা । সেই মনে পড়ে জ্যৈষ্ঠের ঝড়ে রাত্রে নাহিক ঘুম, অতি ভোরে উঠি তাড়াতাড়ি ছুটি আম কুড়াবার ধূম। সেই সুমধুর স্তব্ধ দুপুর, পাঠশালা-পলায়ন,— ভাবিলাম হায় আর কি কোথায় ফিরে পাব সে জীবন ? সহসা বাতাস ফেলি’ গেল শ্বাস শাখা জুলাইয়া গাছে ; দুটি পাকা ফল লভিল ভূতল আমার কোলের কাছে। ২৯১