পাতা:কাব্যগ্রন্থ (তৃতীয় খণ্ড).pdf/৩৮৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চিত্রা অশ্ব হইতে নামিল রমণী, আমিও নামিনু নীচে, আঁধার-ব্যাদান গুহার মাঝারে চলিনু তাহার পিছে । ভিতরে খোদিত উদার প্রাসাদ শিলাস্তস্ত পরে, কনক শিকলে সোনার প্রদীপ দুলিতেছে থরে থরে । ভিত্তির কায়ে পাষাণ মূৰ্ত্তি চিত্রিত আছে কত, অপরূপ পার্থী, অপরূপ নারী, লতাপাত নানা মত । মাঝখানে আছে চাদোয়া খাটানো, মুক্ত ঝালরে গাথা,— তারি তলে মণি-পালঙ্ক পরে আমল শয়ন পাতা । তারি দুই ধারে ধূপাধার হ’তে উঠিছে গন্ধধূপ, সিংহবাহিনী নারীর প্রতিমা দুই পাশে অপরূপ । নাহি কোনো লোক, নাহিক প্রহরা, নাহি হেরি দাসদাসী গুহাগৃহতলে তিলেক শব্দ হ’য়ে উঠে রাশিরাশি । নীরবে রমণী আবৃত বদনে বসিলা শয্যাপরে, অঙ্গুলি তুলি’ ইঙ্গিত করি পাশে বসাইল মোরে। হিম হ’য়ে এল সৰ্ব্ব শরীর শিহরি উঠিল প্রাণ ;— শোণিত-প্রবাহে ধবনিতে লাগিল ভয়ের ভীষণ তান । সহসা বাজিয়া বাজিয়া উঠিল দশ দিকে বীণা বেণু, মাথার উপরে ঝরিয়া ঝরিয়া পড়িল পুষ্পরেণু। দ্বিগুণ আভায় জুলিয়া উঠিল দীপের আলোকরাশি,— ঘোমটা ভিতরে হাসিল রমণী মধুর উচ্চ হাসি। সে হাসি ধ্বনিয়া ধ্বনিয়া উঠিল বিজন বিপুল ঘরে,— শুনিয়া চমকি ব্যাকুল হৃদয়ে কহিলাম যোড়করে,— C) o