পাতা:কাব্যগ্রন্থ (তৃতীয় খণ্ড).pdf/৬৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সোনার তরী বহুকাল স্তব্ধ থাকি? শুনেছিল মুদে আঁখি এই মহাসমুদ্রের গীতি চিরন্তন ; তার পরে কৌতুহলে ব্যাপায়ে অগাধ জলে করেছিল এ অনন্ত রহস্য মন্থন । বহুকাল দুঃখ সেবি নিরখিল, লক্ষীদেবী উদিলা জগৎমাঝে অতুল সুন্দর। সেই সমুদ্রের তীরে শীর্ণদেহে জীণচীরে ক্ষ্যাপা খুজে খুজে ফিরে পরশ-পাথর। এতদিনে বুঝি তার ঘুচে গেছে আশ । খুজে খুজে ফিরে তবু বিশ্রাম না জানে কভু, আশা গেছে, যায় নাই খোজার অভ্যাস । বিরহী বিহঙ্গ ডাকে সারানিশি তরুশাখে, যারে ডাকে তা’র দেখা পায় না অভাগা । তবু ডাকে সারাদিন আশাহীন শ্রান্তিহীন একমাত্র কাজ তা’র ডেকে ডেকে জাগা” । আর সব কাজ ভুলি আকাশে তরঙ্গ তুলি’ সমুদ্র না জানি কারে চাহে অবিরত। যত করে হায় হায়, কোনোকালে নাহি পায় তবু শূন্যে তোলে বাহু, ওই তা’র ব্রত। 8b"