পাতা:কাব্যগ্রন্থ (তৃতীয় খণ্ড).pdf/৮৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সোনার তরী কেহ বা তোলে হাই, কেহ বা ঢোলে, কেহ বা চলে যায় ঘরে । “ওরে রে আয় ল’য়ে তামাকু পান” ভূত্যে ডাকি কেহ কয় । সঘনে পাখা নাড়ি কেহ বা বলে “গরম আজি অতিশয় ।” করিছে আনাগোনা ব্যস্ত লোক, ক্ষণেক নাহি রহে চুপ ; নীরব ছিল সভা, ক্রমশঃ সেথা শবদ উঠে শতরূপ । বুড়ার গান তাহে ডুবিয়া যায়, তুফান মাঝে ক্ষীণ তরী ; কেবল দেখা যায় তানপুরায় আঙল কাপে থরথরি। হৃদয়ে যেথা হ’তে গানের সুর উছসি উঠে নিজ সুখে, হেলার কলরব শিলার মত চাপে সে উৎসের মুখে । কোথায় গান আর কোথায় প্রাণ, দু’দিকে ধায় দুইজনে, তবুও রাখিবারে প্রভুর মান বরজ গায় প্রাণপণে । \ob”