পাতা:কাব্যগ্রন্থ (তৃতীয় খণ্ড).pdf/৯৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সোনার তরী শুষ্ক পত্র ল’য়ে ; বেলা ধীরে যায় চলে’ ছায়া দীর্ঘতর করি’ অশ্বথের তলে । মেঠো সুরে কাদে যেন অনন্তের বঁাশি বিশ্বের প্রান্তর মাঝে ; শুনিয়া উদাসী বসুন্ধরা বসিয়া আছেন এলোচুলে দূরব্যাপী শস্তক্ষেত্রে জাহ্নবীর কূলে একখানি রৌদ্রপীত হিরণ্য-অঞ্চল বক্ষে টানি দিয়া ; স্থির নয়নযুগল দূর নীলাম্বরে মগ্ন ; মুখে নাহি বাণী। দেখিলাম তার সেই স্নান মুখখানি সেই দ্বারপ্রান্তে লীন, স্তব্ধ মৰ্ম্মাহত মোর চারি বৎসরের কন্যাটির মত ! ১৪ই কাৰ্ত্তিক, ১২৯৯ ।