পাতা:কাব্যগ্রন্থ (পঞ্চম খণ্ড).pdf/৪৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


নবকীৰ্ত্তি-সূর্য্যোদয় পাইবে প্রকাশ । নিশ্বাস ফেলিয়া, উঠিলু শয়ন ছাড়ি’ ; মালতীর লতাজাল দিলাম নামায়ে সাবধানে, রবিকর করি অন্তরাল স্থপ্তমুখ হ’তে দেখিলাম চতুদিকে সেই পূর্বপরিচিত প্রাচীন পৃথিবী । আপনারে আরবার মনে পড়ে গেল ছুটিয়া পলায়ে এনু, নব প্রভাতের শেফালি-বিকীর্ণ-তৃণ বনস্থলা দিয়ে, আপনার ছায়াত্রস্তা হরিণীর মত । বিজন বিতানতলে বসি’, করপুটে মুখ আবরিয়া, কঁাদিবারে চাহিলাম, এল না ক্রেনদন । মদন হায়, মানবনন্দিনি, স্বগের সুখের দিন স্বহস্তে ভাঙিয়া ধরণীর একরাত্রি পূর্ণ করি তাহে যত্নে ধরিলাম তব অধরসম্মুখে ; শচীর প্রসাদস্থধা, রতির চুম্বিত, নন্দনবনের গন্ধে মোদিত-মধুর, তোমারে করানু পান, তবু এ ক্ৰন্দন । ○>