পাতা:কাব্যগ্রন্থ (ষষ্ঠ খণ্ড).pdf/২৭৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


প্রথম অঙ্ক ভৈরো—একতাল উলঙ্গিনী নাচে রণরঙ্গে , আমরা নৃত্য করি সঙ্গে । দশদিক্‌ আঁধার করে মাতিল দিগৃবসনা, জলে বহ্নিশিখা রাঙা রসনা, দেখে মরিবারে ধাইছে পতঙ্গে ! কালে কেশ উড়িল আকাশে, রবি সোম লুকাল তরাসে ! রাঙা রক্তধারা ঝরে কালো অঙ্গে, ত্রিভুবন কাপে ভুরুভঙ্গে । সকলে জয় মা ! গণেশ আর ভয় নেই । কালু ওরে, সেই দক্ষিণদ’র মানুষগুলো এখন গেল কোথায় ? গণেশ মায়ের ঐশ্বঘ্য বেটদের সহল না । তা'রা ভেগেছে ! হারু কেবল মায়ের ঐশ্বৰ্য্য নয়, আমি তাদের এমনি শাসিয়ে দিয়েছি, তারা আর এমুখে হবে না। বুঝলে অত্রর দা, আমার মামাতো ভাই দফাদারের নাম করবামাত্র তাদের মুখ চুণ হ’য়ে গেল ।