পাতা:কাব্য-সঞ্চয়ন (সত্যেন্দ্রনাথ দত্ত).djvu/১০১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কবর ই-নুরষ্টাঙ্গম জিত মরণের বুকে গাড়িয়া নিশান, জয়ী প্রেম তোলে হের শির, ধবল বিপুল বাহু মেলি চারিখান ঘোষে জয় মৌন গভীর, চির মুন্দর তাজ প্রেমে নিরমাণ শিরোমণি মরণ-ফণী। কবর-ই-নূরজাহান “বর মাজারেম গরীব দ্যঃ চেরাগে স্তঃ গুলে! ন্তঃ পরে পরমান স্বজদ স্ত: স্ততায়ে বুলবুলে । আজকে তোমায় দেখতে এলাম জগৎ-আলো নূরজাহান ! সন্ধ্য-রাতের অন্ধকার আজ জোনাক-পোকায় স্পনামান । বাংলা থেকে দেখতে এলাম মরুভূমির গোলাপ ফুল, ইরান দেশের শকুন্তলা! কই সে তোমার রূপ অতুল ? পাষাণ-কবর বোরকা খোলো দেখবো তোমায় মুন্দরী ! দাড়াও শোভার বৈজয়ন্তী ভুবন-বিজয় রূপ ধরি। জগৎ-জেতা জাহাঙ্গীরের জগৎ আজি অন্ধকার, জাগ তুমি জাহান্‌ নূরী আলোর ভর দিক আবার ; কর গো হতন্ত্র ধরায় রূপের পূজা প্রবর্তন— কত যুগ আর চলবে অলীক পরীর রূপের শব-সাধন ? জাগাও তোমার রূপের শিখা, মরে মরুক পতঙ্গ ; রতির মুরুতিতে জাগ, অঙ্গ লডুক অনঙ্গ । রূপের গোলাপ রোজ ফোটে না বুলবুলে তা জানে গো, গোলাপ ঘিরে পরস্পরে তাই তারা ঠোঁট হানে গো ;– ፃ ::