পাতা:কালান্তর - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৩৯১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


,! “... * সভ্যতার 曹 cष निनांक्र१ मांब्रिजा चांबाब्र गऋष छनुवांछिठ इण ठा झमकविनांबक । অন্ন বস্ত্র পানীয় শিক্ষা আরোগ্য প্রভূতি মামুষের শরীরমনের পক্ষে ष-क्ङ्गि चउTांबछक ठांब्र ७बन निब्रटिलब्र चखांब ८बांश इञ्च शृषिबैौब्र আধুনিক-শাসন-চালিত কোনো দেশেই ঘটে নি। অথচ এই দেশ ইংরেজকে দীর্ঘকাল ধরে তার ঐশ্বর্ধ জুগিয়ে এসেছে। যখন সত্য জগতের মহিমাধ্যানে একান্তমনে নিবিষ্ট ছিলেম তখন কোনো দিন সভ্যনামধারী মানব-আদর্শের এত বড়ে নিষ্ঠুর বিকৃত রূপ কল্পনা করতেই পারি লি ; অবশেষে দেখছি, এক দিন এই বিকারের ভিতর দিয়ে ৰছকোটি জনসাধারণের প্রতি সভ্যজাতির অপরিসীম অবজ্ঞাপূর্ণ ঔদাগীন্ত । r যে যন্ত্রশক্তির সাহায্যে ইংরেজ আপনার বিশ্বকর্তৃত্ব রক্ষা করে এসেছে তার যথোচিত চর্চা থেকে এই নিঃসহায় দেশ বঞ্চিত ; অথচ চক্ষের সামনে দেখলুম, জাপান বস্ত্রচালনার যোগে দেখতে দেখতে সর্বতোভাবে কী রকম সম্পদবান হয়ে উঠল। সেই জাপানের সমৃদ্ধি আমি স্বচক্ষে দেখে এসেছি, দেখেছি সেখানে স্বজাতির মধ্যে তার সভ্য শাসনের রূপ । আর দেখেছি রাশিয়ার মস্কাও নগরীতে জনসাধারণের মধ্যে শিক্ষাবিস্তারের আরোগ্যবিস্তারের কী অসামান্ত অকৃপণ আধ্যৰসায়— সেই অধ্যবসায়ের প্রভাবে এই বৃহৎ সাম্রাজ্যের মূর্খতা ও দৈন্ত ও আত্মাবমাননা অপসারিত হয়ে যাচ্ছে। এই সভ্যতা জাতিবিচার করে নি, বিশুদ্ধ মানবসম্বন্ধের প্রভাব সর্বত্র বিস্তার করেছে। তার ক্রত এবং আশ্চর্য পরিণতি দেখে একই কালে ঈর্ষা এবং আনন্দ অস্থভৰ করেছি। মস্কাও শহরে গিয়ে রাশিয়ার শাসনকার্ষের একটি অসাধারণত আমার অন্তরকে স্পর্শ করেছিল— দেখেছিলেম, সেখানকার মুসলমানদের সঙ্গে রাষ্ট্র-অধিকারের ভাগ-বাটোয়ারা নিয়ে অমুসলমানদের কোনো বিরোধ ঘটে না, তাদের উভয়ের মিলিত স্বাধসম্বন্ধের ভিতরে রয়েছে শাসনব্যবস্থার যথার্থ সত্য ভূমিকা। বহুসংখ্যক পরজাতের উপরে ૨ (: Woly& * -