পাতা:কালান্তর - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৬৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কর্তার ইচ্ছায় কর্ম বালি নদীর জলের উপর মোড়লি করিতে থাকে । তখন স্রোত চলে না, মরুভূমি ধুধু করে। তার উপরে, সেই অচলতাটাকে লইয়াই মানুষ যখন বুক ফোলায় তখন গওতোপরি বিস্ফোটকং । ধর্ম বলে, মাছুষকে যদি শ্রদ্ধ না কর তবে অপমানিত ও অপমানকারী কারও কল্যাণ হয় না । কিন্তু ধৰ্মতন্ত্র বলে, মাল্লুবকে নির্ণয় ভাবে অশ্রদ্ধা করিবার বিস্তারিত নিয়মাবলী যদি নিখুত করিয়া না মান তবে ধর্মভ্ৰষ্ট হইবে । ধর্ম বলে, জীবকে নিরর্থক কষ্ট যে দেয় সে আত্মাকেই হনন করে। কিন্তু ধৰ্মতন্ত্র বলে, যত অসহ কষ্টই হোক, বিধবা মেয়ের মুখে যে বাপ-মা বিশেষ তিধিতে অন্নজল তুলিয়া দেয় সে পাপকে লালন করে । ধর্ম বলে, অমুশোচনা ও কল্যাণ কর্মের স্বারা অন্তরে বাহিরে পাপের শোধন । কিন্তু ধর্ধতন্ত্র বলে, গ্রহণের দিনে বিশেষ জলে ডুব দিলে, কেবল নিজের নয়, চোদ পুরুষের পাপ উদ্ধার । ধর্ম বলে, সাগরগিরি পার হইয়া পৃথিবীটাকে দেখিয়া লও, তাতেই মনের বিকাশ। ধর্মত বলে, সমুদ্র যদি পারাপার কর তৰে খুব লম্বা করিয়া নাকে খত দিতে হইবে । ধৰ্ম ৰলে, যে মানুষ যথার্থ মামুব সে যে ঘরেই জন্মাক পূজনীয়। ধৰ্মতন্ত্র বলে, যে মানুষ ব্রাহ্মণ সে যত বড়ো অভাজনই হোক, মাথায় পা তুলিবার ৰোগ্য। অর্থাৎ মুক্তির মন্ত্র পড়ে ধর্ম, আর দাসত্বের মন্ত্র পড়ে ধর্মতন্ত্র । আমি জানি, এক দিন একজন রাজ। কলিকাতায় আর-এক রাজার সঙ্গে দেখা করিতে গিয়াছিলেন । বাড়ি ধার তিনি কলেজে পাশ-কর। সুশিক্ষিত। অতিথি যখন দেখা সারিয়া গাড়িতে উঠিবেন এমন সময় বাড়ি যার তিনি রাজার কাপড় ধরিয়া টানিলেন ; বলিলেন, “আপনার মুখে পান ’ গাড়ি ধার তিনি দায়ে পড়িয়া মুখের পান ফেলিলেন, কেননা সারখি মুসলমান। এ কথা জিজ্ঞাসা করিবার অধিকারই নাই, 'সাৰথি বেই হোক, মুখের পান ফেলা যায় কেন ? ধর্মবুদ্ধিতে বা 心》