পাতা:কালান্তর - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৮১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কর্তার ইচ্ছায় কর্ম উপরেও আছে । কারণ, দুই পক্ষের যোগ না হইলে বিশ্বতি ও বিকার ঘটে । ইংরেজ নিজের ইতিহাসের gোহাই দিয়া এমন কথা বলিতে পারে, ‘জনসাধারণের আত্মৰত্বত্বটি যে একটি মস্ত জিনিস তা আমরা নানা বিপ্লবের মধ্য দিয়া তৰে বুঝিয়াছি এবং নানা সাধনার মধ্য দিয়া তৰে সেটাকে গড়িয়া তুলিয়াছি।” এ কথা মানি । জগতে এক-এক অগ্রগামী দল এক-এক বিশেষ সত্যকে আবিষ্কার করে। সেই আবিষ্কারের গোড়ায় অনেক ভুল, অনেক দুঃখ, অনেক ত্যাগ আছে । কিন্তু তার ফল বারা পায় তাহাদিগকে সেই ভুল, সেই দুঃখের সমস্ত লম্বী রাস্তাটা মাড়াইতে হয় না । দেখিলাম, বাঙালির ছেলে আমেরিকায় গিয়া হাতে-কলমে এঞ্জিন গড়িল এবং তার তত্ত্বও শিখিয়া লইল, কিন্তু আগুনে কাৎলি চড়ানো হইতে শুরু করিয়া স্ট্রম এঞ্জিনের সমস্ত ঐতিহাসিক পালা যদি তাকে সারিতে হইত তবে সত্যযুগের পরমান্তু নহিলে তার কুলাইত না । য়ুরোপে বাহা গজাইয়া উঠিতে বহু যুগের রৌদ্রবৃষ্টি বড়বাতাস লাগিল জাপানে তাহা শিকড়জুদ্ধ পুতিবার বেলায় ৰেশি সময় লাগে নাই। আমাদের চরিত্রে ও অত্যাসে যদি কর্তুশক্তির বিশেষ অভাব ঘটিয়া থাকে তবে আমাদেরই ৰিশেষ দরকার কর্তৃত্বের চর্চা । ব্যক্তিবিশেষের মধ্যে কিছু নাই এট। যদি গোড়া হইতেই ধরিয়া লও, তবে তার মধ্যে কিছু যে আছে সেই জাৰিষ্কার কোনো কালেই হইবে না। আত্মকর্তৃত্বের रषॉग नेिब्रा चांबांटनग्न डिलब्रकांब्र नूठन नृठन अङि-चादिकांटङ्गञ्च श्रद ধুলিয়া দাও ; সেটাকে রোধ করিয়া রাখিয়া যদি আমাদের অবজ্ঞা কর এবং বিশ্বের কাছে চিরদিন অবজ্ঞাভাজন করিয়া রাখ, তবে তার চেয়ে পরম শক্রতা জার-কিছু হইতেই পারে না । ভাইনে বায়ে ছু প। बोफ़ॉऐरणहे वांग्र बाषा ?रू कब्रिब्रा cनब्राहण जिब्र tठरक, ठाग्न यहब কখনো কি সেই বড়ো অাশা টিকিতেই পারে বার জোরে মানুষ সকল ዋm