পাতা:কালান্তর - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৮৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ছোটো ও বড়ো হামরুল তখন সমুত্রপারের স্বপ্নলোকে, কাপ্তেন ঠিক সম্মুখেই, জার গঙ্গামাটা কাধের উপর চড়িয়া বসিয়াছে। আমি বলিলাম, ‘হিন্দুযুসলমানের এই দাঙ্গাটা হোমরুলের অধীনে उl थcछे ब्राहे । निब्रह्म छबिमांब्रछैि चकअप्ठांग्न चन्बांटन cबॉब कब्रि একবার সেনাপতি-সাহেবের ফৌজের দিকে নীয়ৰে তাকাইয়াছিলেন । উপায় রছিল একজনের হাতে আর প্রতিকার করিবে আর-একজনে, এমনতরো শ্রমবিভাগের কথা আমরা কোথাও শুনি নাই । বাংলাদেশেও ঠিক স্বদেশী উত্তেজনার সময়, শুধু জামালপুরের মতো মফস্বলে নয়, একেবারে কলিকাতার বড়োবাজারে হিন্দুদের প্রতি মুসলমানের উপত্ৰৰ প্রচণ্ড হুইয়াছিল – সেটা তো শাসনের কলঙ্ক, শুধু শাসিতের নয় । এইরূপ কাও যদি সদাসৰ্বদা নিজামের হাইদ্রাবাদে বা জয়পুর বরোদ মৈশুরে ঘটিতে থাকিত তৰে সেনাপতি সাহেৰের জবাব খুজিৰার জন্ত আমাদের ভাবিতে হইত।’ আমাদের নালিশটাই যে এই– কর্তৃত্বের দায়িত্ব আমাদের হাতে নাই, কর্ত! বাহির হইতে আমাদিগকে রক্ষা করিৰার ভার লষ্টয়াছে। ইহাতে আমরা ক্রমশই অস্তরের মধ্যে নিঃসহায় ও নিঃসম্বল হইতেছি ; সেজন্ত উলুটিয়া কর্তারাই আমাদিগকে অবজ্ঞা করিলে ভয়ে ভয়ে আমরা জবাব দিই না বটে, কিন্তু মনে মনে যে ভ’ব। প্রয়োগ করি তাহা সাধু নহে । কর্তৃত্ব যদি থাকিত তবে তাছাকে বজায় রাখিতে ও সার্থক করিতে হিন্দু মুসলমান উভয়েরই সমান গরজ থাকিত, সমস্ত উচ্ছ স্থলতার দায়িত্ব সকলে মিলিয়া অতি সাবধানে বহন করিতে হইত । এমনি করিয়া শুধু আজ নহে, চিরদিনের মতো ভারতবর্ষের পোলিটিকাল আশ্রয় নিজের ভিত্তিতে পাক হইত। কিন্তু এমন যদি হয় যে, একদিন ভারত-ইতিহাসের পরিচ্ছেদপরিবর্তন-কালে প্রস্থানের ৰেলায় ইংরেজ তার স্বশাসনের ভগ্নাৰশেষের উপর রাখিয়া গেল জাম্বনির্ভরে Wo , br〉