পাতা:কাশীদাসী মহাভারত.djvu/১০৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


      প্রণাম মন্ত্রঃ-- সর্ব্ব মঙ্গল-মাঙ্গল্যে শিবে সর্ব্বার্থ সাধিকে ।

 বলে ক্রোধ করি,        শুন গো গান্ধারী,
         এ কর্ম্ম কোন বিহিত।।
 জানি সর্ব্ব ধর্ম্ম,        কর হেন কর্ম্ম,
         তোমার উচিত নহে।
 হিংসা মহাক্লেশ,         অধর্ম্ম অশেষ,
         আপনা আপনি দহে।।
 শুনিয়া বচন,          লজ্জিত বদন,
        কহে করযোড় করি।
 তোমার বচন,        হইল লঙ্ঘন,
        এ বড় বিস্ময় হেরি।।
 বলে ব্যাসমুনি        শুন সুবদনি,
        মম বাক্য অন্য নয়।
 দুঃখে পরিহর,       মম বাক্য ধর,
        হইবে শত তনয়।।
 শত কুণ্ড করি,      ঘৃতে তাহা পূরি,
       মাংসপিণ্ড করি কোলে।।
 তৈল জলেতে,       সিঞ্চিতে সিঞ্চিতে,
       যেন বিধি নিরমিল।
 এক মাংসপিণ্ড,      কৈল শত খণ্ড,
       একাধিক শত হৈল।।
 অঙ্গুলির পর্ব্ব,       প্রায় হৈল সর্ব্ব,
       ঘৃতকুণ্ডে লৈয়া ফেলে।
 তবে তপোধন,      সুদৃঢ় বচন,
       গান্ধারী দেবীরে বলে।।
 এই কুণ্ডগণে,       রাখিয়া যতনে,
       নাহি হও উতরোল।
 আপন ইচ্ছায়,      জানাও রাজায়,
       নাহি ভাঙ্গ মম বোল।।
 এত বলি ঋষি,     হিমালয়বাসী,
       গেল হিমালয়ে চলি।
 গত কিছু দিন,     হৈল দুর্য্যোধন,
       মূর্ত্তিমন্ত যুগ কলি।।
 ভীম যেই দিনে,    জন্মিল কাননে,
        সেই দিনে দুর্য্যোধন।
 জনম মাত্রেতে,     শিখিগণ ডাকে,
        যেমন গৃধ্র গর্জ্জন।।
 তার ডাক শুনি,     যেন গৃধ্রধ্বনি,
       গৃধ্রগণ সব ডাকে।
 কুকুর শৃগাল,       ডাকে পালে পালে,
       নগর পূরিল ডাকে।।
 বহে তপ্ত বাত,      সঘনে নির্ঘাত,
       দশদিক যায় পুড়ি।
 মিহির মুদিল,       রুধির বসিল,
       ঝনঝনা হয় গিরি।।
 এ সব চরিত,       দেখি বিপরীত,
       চিন্তিল কৌরব পতি।
 ভীষ্ম মহামতি,       বিদুর প্রভৃতি,
       জানাইল শীঘ্রগতি।।
 সবার অগ্রেতে        লাগিল কহিতে,
       ধৃতরাষ্ট্র গুণাধার।
 শব্দ শুনা গেল,      পাণ্ডুপুত্র হৈল,
      বংশের জ্যেষ্ঠ কুমার।।
 রাজা সেই হবে,      প্রজা সুখী হবে,
      মোর মন তাহে সুখী।
 মোর পুত্র হ'তে,     অতি বিপরীতে,
      বহু অমঙ্গল দেখি।।
 বিধান ইহার,        করিয়া বিচার,
      কহ মোরে সর্ব্বজন।
 রাজার বচন,        করিয়া শ্রবণ,
      বিদুর বলে তখন।।
 ভারত-সঙ্গীত        জগৎ মোহিত,
       কেবল অমৃত নিধি।
 কাশীদাস কয়,       খণ্ডে যম ভয়,
       পান কর নিরবধি।।
           ----
  দুঃশলার জন্ম।
   বিদুর বলেন অবধান মহারাজ।
 যত অমঙ্গল দেখি ভাল নহে কাজ।।
 ইথে প্রায়শ্চিত্ত রাজা নাহি কিছু আর।
 তবে সে মঙ্গল হয় ত্যজহ কুমার।।