পাতা:কাশীদাসী মহাভারত.djvu/১০৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


     গৌরবর্ণাং সুরূপাঞ্চ সর্ব্বালঙ্কার ভূষিতাং।।
 পূর্ব্বকালে নাহি ছিল এ সব নিয়ম।
 যারে যার ইচ্ছা হয় করিত সঙ্গম।।
 ইচ্ছামত স্ত্রীগণ যাইত যথা স্থানে।
 না ছিল বিরোধ পূর্ব্বে ব্রম্ভার সৃজনে।।
 নিয়ম করিল ঋষিপুত্র একজন।
 উদ্দালক নামে এক মহা তপোধন।
 শ্বেতকেতু নাম ধরে তাহার নন্দন।।
 পিতা মাতা কোলে ক্রীড়া করে অনুক্ষণ।
 হেনকালে আইলেন মুনি একজন।।
 কামাতুর হৈয়া মুনি ধরে তার মায়।
 স্বামী পুত্র কাছে হৈতে ধরি ল'য়ে যায়।।
 বিস্ময় হইয়া শিশু চায় পিতৃপানে।
 ক্রোধমুখে জিজ্ঞাসিল জনকের স্থানে।।
 কোথা হৈতে আইসে দ্বিজ বড় দুরাচার।
 জননীরে ল'য়ে যায় কোথায় আমার।।
 শুনিয়া বচন মুনি করেন প্রবোধ।
 পূর্ব্বাপর আছে বাপ না করিও ক্রোধ।।
 শুনিয়া হইল শিশু অধিক কূপিত।
 এ হেন কুৎসিত কর্ম্ম বিধির সৃজিত।।
 সৃষ্টি করি প্রজাপতি নিয়ম না জানে।
 হেন অনুচিত কর্ম্ম করে সে কারণে।।
 আজি হৈতে সৃষ্টি মধ্যে করিব নিয়ম।
 দেখ পিতা আজি মম তপঃ পরাক্রম।।
 নিজ নিজ স্বামী ভার্য্যা ত্যাজি যেই জন।
 পরনারী পরস্বামী করিবে গমন।।
 সংসারে যতেক পাপে হইবে সে পাপী।
 নরক হইতে পার না হবে কদাপি।।
 স্ত্রী হইয়া স্বামীর বচন নাহি শুনে।
 স্বামী যদি নিয়োজেন বংশের রক্ষণে।।
 অবজ্ঞায় স্বামী বক্য করে অনাদর।
 চিরকাল মজে সেই নরক ভিতর।।
 হেনমতে মুনিপুত্র নিয়ম করিল।
 পূর্ব্বমত ত্যাজি তাই হেনমত হৈল।।
 আর পূর্ব্ব কথা কহি করহ শ্রবণ।
 সূর্য্যবংশে ছিল নাম সৌদাস রাজন।।
 মদয়ন্তী ভার্য্যা তাঁর পরমা সুন্দরী।
 অপত্য বিহনে দোঁহে সদা চিন্তা করি।।
 বশিষ্ঠের স্থানে ভার্য্যা নিযুক্ত করিল।
 মুনির ঔরসে তাঁর বহুপুত্র হৈল।।
 বংশ হেতু হেন মত আছে পূর্ব্বতন।
 বিস্ময় না কর ইথে স্থির কর মন।।
 সেই হেতু আজ্ঞা আমি করি যে তোমারে।
 পুত্রার্থে নাহিক শক্তি কি বল আমারে।।
 কৃতাঞ্জলি করি আমি নিবেদি তোমায়।
 পুত্র জন্মাই*/তে কর আপনি উপায়।।+
 রাজার করুণ বাক্য শুনি পতিব্রতা।
 কহিতে লাগিল আপনার পূর্ব্বকথা।।
 বাল্যকালে পিতৃগৃহে ছিলাম যখন।
 অতিথি সেবনে ছিল মম নিয়োজন।।
 অকস্মাৎ আইল দুর্ব্বাসা মুনিবর।
 মুনিরাজে সেবা করিলাম বহুতর।।
 পরম পণ্ডিত সেই মুনি মহাশয়।
 সেবাবশে মম প্রতি হইল সদয়।।
 মন্ত্র দিয়া আমারে কহিলেন সে মুনি।
 যেই দেবে ইচ্ছা তব হবে সুবদনী।।
 এই মন্ত্রে পড়ি আরে করিবা আহ্বান।
 অবিলম্বে সে দেব আসিবে তব স্থান।।
 যেই বর ইচ্ছা কর পাবে সেই বর।
 এত বলি দুর্ব্বাসা গেলেন দেশান্তর।।
 এখন যেমত আজ্ঞা কর দণ্ডধর।
 আজ্ঞা কর দেবস্থানে মাগি পুত্রবর।।
 যে তোমারে কহিলাম পূর্ব্বের বিধান।
 আজ্ঞা কর কোন দেবে করিব আহ্বান।।
 রাজা বলিলেন মুনি দিয়াছেন বর।
 পুত্রের কারণে তবে কেন চিন্তা কর।।
 হোম যজ্ঞ পূজা করি যাঁহার উদ্দেশে।
 নানামতে অর্চ্চি যাঁরে অতিশয় ক্লেশে।।
 তথাপি দেবের নাহি পাই দরশন।
 উদ্দেশে মাগি যে বর যার যেই মন।।
 হেন দেব সাক্ষাতে চাহিবা তুমি বর।
 শুভকার্য্যে সুবদনী বিলম্ব না কর।।